ADVERTISING

২০১৯ সালের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জনের পূর্বাভাসে নিম্নমুখী সমন্বয় আনলো সিঙ্গাপুর

২০১৯ সালের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জনের পূর্বাভাসে নিম্নমুখী সমন্বয় আনলো সিঙ্গাপুর ২০১৯ সালের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জনের পূর্বাভাসে নিম্নমুখী সমন্বয় আনলো সিঙ্গাপুর

MarketDeal24.Com – দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার এক অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ দেশ, শহররাষ্ট্র সিঙ্গাপুর চলমান ২০১৯ সালের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জনের পূর্বাভাসে নিম্নমুখী সমন্বয় এনেছে। বিশ্বজুড়ে চলমান অর্থনৈতিক স্থবিরতা এবং দেশটির অর্থনীতির বিষয়ে সাম্প্রতিক সময়ে প্রকাশিত প্রত্যাশার চেয়ে নেতিবাচক তথ্যের দরুন দেশটির অর্থনীতিতে মন্দাবস্থা সৃষ্টি হওয়ার আশংকা দেখা দিয়েছে। যার দরুন অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জনের পূর্বাভাসে কর্তৃপক্ষ কর্তৃক এই নিম্নমুখী সমন্বয়।

সিঙ্গাপুরের সরকার চলমান ২০১৯ সালের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জনের রেঞ্জের পূর্বাভাসের মধ্যে নিম্নমুখী সমন্বয় এনেছে। যা হচ্ছে 0% থেকে 1%। এবং তা পূর্বে ছিলো 1.5% থেকে 2.5% এর রেঞ্জে।

সিঙ্গাপুর দ্বারা তার অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জনের রেঞ্জের পূর্বাভাসের মধ্যে নিম্নমুখী সমন্বয় আনার কারণে বিশ্বজুড়ে সৃষ্টি হয়েছে অর্থনৈতিক রক্ষণশীলতার দরুন আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্যের উপরে পড়ে যাওয়া নেতিবাচক প্রভাবের আশঙ্কার। শুধু তাই নয়, বিশ্বজুড়ে চলমান অর্থনৈতিক স্থবিরতার দরুন বিভিন্ন দেশগুলোর কেন্দ্রীয়ব্যাঙ্কের পক্ষ থেকে হ্রাস করা হয়েছে সুদের হারকে এবং গ্রহণ করা হয়েছে সৃজনশীল কিছু আর্থিক প্রণোদনা।

পরিস্থিতি সম্পর্কে সিঙ্গাপুরের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়, “সিঙ্গাপুরের অর্থনীতির কিছু গুরুত্বপূর্ণ খাতগুলোর দৃষ্টি দিলে মনে হবে যে, চলমান ২০১৯ সালের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিক সময়কালের তথ্য প্রথম ত্রৈমাসিক সময়কালের একই তথ্যের চেয়ে কম অথবা তুলনায় অপরিবর্তিত থাকছে।”

Forexmart

শুধু তাই নয়, মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির পূর্বাভাসের মধ্যে সমন্বয় আনার পেছনের কিছু কারণও উল্লেখ করা হয়েছে যেমন হংকং এর রাজনৈতিক অবস্থা, জাপান-কোরিয়ার মধ্যেকার বাণিজ্য দ্বন্দ্ব, মার্কিন-চীন বাণিজ্য যুদ্ধ, চীনে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি কমে যাওয়া, এবং ব্রেক্সিট।

মঙ্গলবার জারিকৃত তথ্য মোতাবেক, চলমান ২০১৯ সালের প্রথম ত্রৈমাসিক সময়কালে দেশটির অর্থনীতি 3.3% হারে সংকুচিত হয়। যা সরকার কর্তৃক করা আগাম পূর্বাভাসের 3.4% এর হারের চেয়ে সামান্য কম। শুধু তাই নয়, আজকের তথ্য আরও নিশ্চিত করে যে, এপ্রিল-জুন সময়কালের মধ্যে দেশটির অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি 0.1% (বাৎসরিক) হারে বৃদ্ধি পায়।

এদিকে, আজ এশিয়ান সেশন শুরু হলে, দেশটির পুঁজিবাজারের সবচেয়ে জনপ্রিয় সূচক STI তার মূল্যমানে পূর্বের চেয়ে 1.2% হারে হ্রাস পায়।

অন্যদিকে, দেশটির কেন্দ্রীয়ব্যাঙ্কের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে, প্রত্যাশার চেয়ে তথ্য নেতিবাচক হলেও, সময়ের পূর্বে কোনোধরনের মুদ্রানীতি সম্পর্কিত নীতিনির্ধারণী বৈঠক অনুষ্ঠিত হবার সম্ভাবনা নেই। উল্লেখ্য, আসছে অক্টোবর মাসে ব্যাঙ্ক কর্তৃক একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা যেখানে আশা করা যাচ্ছে যে তারা মুদ্রানীতির মধ্যে সম্প্রসারণ আনবেন।

IC MARKETS ব্রোকার এ একাউন্ট খুলুন – http://bit.ly/2Jd7FsO

leave a reply