করোনা মোকাবেলায় দেশবাসীকে আলো জ্বালিয়ে সংহতি প্রকাশের আহ্বান নরেন্দ্র মোদীর

করোনা মোকাবেলায় দেশবাসীকে আলো জ্বালিয়ে সংহতি প্রকাশের আহ্বান নরেন্দ্র মোদীর করোনা মোকাবেলায় দেশবাসীকে আলো জ্বালিয়ে সংহতি প্রকাশের আহ্বান নরেন্দ্র মোদীর

MarketDeal24.Com – বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাস রুপ নিয়েছে এক মহামারীতে। এখন পর্যন্ত কেড়ে নিয়েছে ৫০০০০ মানুষের প্রাণ। আক্রান্ত হয়েছে ১ মিলিয়নের বেশি মানুষ।

এর মধ্যে করোনার অন্ধকার দূর করতে দেশবাসীকে একসাথে একই সময়ে আলো জ্বালিয়ে জাতীয় সংহতি দেখানোর আহ্বান জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

রোববার ভারতের স্থানীয় সময় রাত ৯টায় সবাইকে একসাথে ঘরের সব আলো নিভিয়ে নিজ নিজ বাড়ির দরজা, জানালা কিংবা বারান্দায় ৯ মিনিটের জন্য মোমবাতি, প্রদীপ বা মোবাইলের ফ্ল্যাশলাইট জ্বালাতে অনুরোধ করেছেন তিনি।

শুক্রবার ভিডিও কনফারেন্সে দেশবাসীর উদ্দেশ্যে দেওয়া এক ভাষণে মোদী এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন ।

Forexmart

মোদী বলেন, “৫ই এপ্রিল রোববার রাত ৯টায়, আপনারা দয়া করে ঘরের সব আলো নিভিয়ে দেবেন এবং প্রত্যেকে হাতে হয় একটি মোম, নাহয় প্রদীপ কিংবা মোবাইলের ফ্ল্যাশলাইট জ্বালিয়ে বারান্দায় এসে ৯ মিনিটের জন্য দাঁড়াবেন।”

ঘরবন্দি অবস্থায় কেউ যেন নিজেকে একা মনে না করেন সেজন্য এই কর্মসূচি দেয়া হয়েছে বলে জানান মোদী। আলো জ্বালানোর সময় কোথাও যেন মানুষ জমায়েত না হয়, তা নিশ্চিত করতেও অনুরোধ করেছেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, “প্রত্যেকের কাছে আমার আরও একটি অনুরোধ আছে। এই কর্মসূচির সময় কেউ কোথাও জমায়েত হবেন না। প্রত্যেকে তার নিজ বাড়ির দরজা, জানালা বা বারান্দায় আলো হাতে থাকবেন। সামাজিক দূরত্ব অবশ্যই মেনে চলতে হবে।”

ভারতের প্রধানমন্ত্রী তার বার্তায় বলেন, “এই লকডাউনে আমরা একা নই, প্রত্যেকের সঙ্গে ভারতের ১৩০ কোটি মানুষের সম্মিলিত শক্তি আছে।”

করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে নির্দেশনা ও প্রাদুর্ভাব মোকাবেলায় সরকারের পদক্ষেপ জানাতে এ নিয়ে তৃতীয়বার দেশবাসীর সামনে হাজির হলেন মোদী। প্রথমবারে একদিনের জন্য ‘জনতা কারফিউ’র ডাক দিয়েছিলেন তিনি। সেবার সারাদিন ঘরবন্দি থাকার পর অনেক এলাকায় মানুষের জমায়েত ব্যাপক সমালোচনার সৃষ্টি করেছিল। দ্বিতীয় ভাষণে দেশজুড়ে ২১ দিনের লকডাউনের ঘোষণা দেন মোদী।

শুক্রবারের ভাষণে মোদী বলেন

শুক্রবারের ভাষণে মোদী বলেন, “এই অন্ধকারের বিরুদ্ধে আমরা একসঙ্গে লড়বো। এই সময়ে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন দরিদ্র ও প্রান্তিক মানুষরা। এই অন্ধকার অতিক্রমে আমাদের একসঙ্গে আলো জ্বালতে হবে।”

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সরকারের দেওয়া লকডাউন ও সামাজিক দূরত্বের নির্দেশনা মেনে চলতে একের পর এক টুইটও করেছেন ভারতের এ প্রধানমন্ত্রী। ঘরে থাকা অবস্থায় যোগব্যায়াম করতেও উৎসাহ দিচ্ছেন এ বিজেপি নেতা।

বৃহস্পতিবার বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে এক বৈঠকে মোদী লকডাউনের পর লোকজনের চলাচল সীমিত ও অর্থনীতির চাকা চালু রাখতে সমন্বিত পদক্ষেপ নেয়ার পরিকল্পনা করতেও অনুরোধ করেছেন।

ডিসেম্বরের শেষদিকে চীনের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস এখন ইউরোপ ও যুক্তরাষ্ট্র দাপিয়ে বেড়ালেও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO) দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোতেও ভাইরাসটি ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে সতর্ক করেছে।

ভারতে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ২,৩০১ জনের দেহে করোনভাইরাস শনাক্ত হয়েছে বলে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, এতে মারা গেছে অন্তত ৫৬ জন।

এর মধ্যে কেবল বৃহস্পতিবারই ৩৩৬ নতুন আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে, মারা গেছে ৩ জন। আক্রান্তদের মধ্যে ১৫৭ জন চিকিৎসা শেষে সেরে উঠেছে বলেও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় নিশ্চিত করেছে।

অস্ট্রেলিয়ার শেয়ার বাজার নিম্নমুখী; S&P/ASX 200 কমেছে 1.68%

  • বিশ্বে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১ মিলিয়ন; মৃতের সংখ্যা প্রায় ৫০,০০০
    আগ ২৪, ২০২০

leave a reply