ক্রিপ্টোকারেন্সির উপর মার্কিন নির্বাচন ও TikTok এর প্রভাব

MarketDeal24.Com – Bitcoin এর জন্য এই সপ্তাহটি খুবই স্থিতিশীল একটি সপ্তাহ ছিলো। বড় ধরনের কোনো ব্রেক আউট ও হয়নি আবার বিশাল কোনো পতন ও হয় নি, শুধু ১.৬% মূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে।

তবে এ থেকে যদি কেউ মনে করে থাকেন যে Bitcoin পুরোদমে স্থিতিশীল হচ্ছে তাহলে আর একটু ভাবা দরকার। অনেক বিশ্লেষকরা মনে করছেন Bitcoin এর প্রাইসে বড় ধরনের পরিবর্তন আসতে যাচ্ছে, হয় উপরের দিকে নাহয় নীচের দিকে। তবে বেশীর ভাগ বিশ্লেষকরাই ইতিবাচক দিকে আছে। তাদের মতে বিটকয়েনের বর্তমান পরিস্থিতি আইফোন আসার আগে Apple এর মতো অবস্থায় আছে। ২০২৩ নাগাদ বিটকয়েনের দাম $৬০,০০০ এ পোঁছাবে বলে তারা ধারনা করছেন।

এমনটি যদি হয় তাহলে জার্মানিতে হওয়া গরিলা মার্কিন ক্যাম্পেইণে অংশগ্রহণকারীদের জন্য লাভজনক হবে। সেখানে মানুষকে বিনা মূল্যে বিটকয়েনকে উদ্ধৃত করে স্টিকার বিতরন করা হচ্ছে এবং এর বদলে গ্রাহকদেরকে ৬৭৫ সাতোউসি গিফট করা হচ্ছে।

তবে তাদের এর পরিবর্তে ডজকয়েন কেনা উচিত। এটি এমন কিছু যা টিকটক ব্যবহারকারীরা করছেন। টিকটক ব্যবহারকারীরা একে অপরকে বলছেন যে ডজকয়েন ক্রয় করতে বেশি বেশি করে এবং বলছে যে যদি বিপুল পরিমাণ ক্রয় হয় তাহলে মূল্য বৃদ্ধি পাবে এবং তারা লাভজনক অবস্থায় থাকবে। নতুন চাহিদা বৃদ্ধি মুদ্রার দাম অল্প সময়ে 20 শতাংশ বাড়িয়ে দিয়েছে এবং এটি এখন সপ্তাহের শুরুতে যে দাম ছিল তার দ্বিগুণেরও বেশিতে অবস্থান করছে।

Forexmart

অতিরঞ্জিত কিছু ব্যাপার খেয়াল করা যাচ্ছে, যেমন রাজনীতিতে ক্রিপ্টো সরাসরি প্রভাব ফেলতে শুরু করেছে। বিটকয়েনের খুবই কাছের বন্ধু এবং এক সময় ট্রাম্পের অনুরাগী কেইনি ওয়েস্ট ঘোষণা দিয়েছে যে সে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে অংশ নিবেন। তবে এক্ষেত্রে সে একা নয়। বিটকয়েন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান এবং ইওএস জোটের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ব্রোক পিয়ার্স বলেছেন যে তিনি হোয়াইট হাউজ এর প্রতিনিধি নির্বাচনে অংশ নেবেন।

যুক্তরাষ্ট্রের সিনেট ব্যাংকিং কমিটি

সিনেট ইতিমধ্যে ক্রিপ্টোকারেন্সিগুলির দিকে অনেকটাই অগ্রসর হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের সিনেট ব্যাংকিং কমিটি একটি শুনানি করেছে যেখানে ডিজিটাল ফিনান্সে কোভিড -১৯ এর প্রভাব নিয়ে আলোচনা হয়েছে এবং ডিজিটাল মুদ্রা তৈরিতে মার্কিন সরকারের ভূমিকা সম্পর্কে জানতে চায় তারা। একই সময়ে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে কমোডিটি ফিউচার ট্রেডিং কমিশন, যা সিদ্ধান্তমূলক বাজারগুলি নিয়ন্ত্রণ করে, তা ক্রিপ্টোকে ব্যবসায়ের জন্য অগ্রাধিকারযুক্ত করার নিয়মকানুন তৈরি করেছে। সংস্থাটি ২০২৪-এর মধ্যে লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে।

এদিকে আরো ভাল খবর হলো, একটি নতুন এপ্লিকেশন দাবী করেছে যে তারা ব্যাংক একাউন্ট ব্যাবহার করে বিটকয়েন এবং লাইটকয়েনের লেনদেনের সুবিধা দিতে পারবে।

এদিকে ইউনিসেফ ঘোষণা দিয়েছে যে তারা ইক্যুয়িটি ফ্রি তহবিলে প্রায় ১লাখ ডলার বিনিয়োগ করেছে ছয়টি নতুন প্রজেক্ট এর জন্য যেগুলো ব্লকচেইন দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হবে। যা কিনা ক্রিপ্টো এর জন্য ভাল সংবাদ।

PrimeXBT – ক্রিপ্টো ট্রেডিংয়ের জগতে এক অনন্য ব্রোকার

২ Comments

  • U.S. Futures ঊর্ধ্বমুখী; Dow Futures বৃদ্ধি পেয়েছে 230 পয়েন্টস
    জুলা ১৩, ২০২০
  • মঙ্গলবার বাজারে লক্ষ্য রাখার মতো ৩ টি বিষয় | ১৪ই জুলাই, ২০২০
    জুলা ১৪, ২০২০

leave a reply