চীনের কেন্দ্রীয় ব্যাংক মানি লন্ডারিং রোধ করতে বিদেশী সহযোগিতা কামনা করেন

চীনের কেন্দ্রীয় ব্যাংক মানি লন্ডারিং রোধ করতে বিদেশী সহযোগিতা কামনা করেন চীনের কেন্দ্রীয় ব্যাংক মানি লন্ডারিং রোধ করতে বিদেশী সহযোগিতা কামনা করেন

বেইজিং (রয়টার্স) – বুধবার চীনের কেন্দ্রীয় ব্যাংক জানিয়েছে সীমান্তে অবৈধভাবে পাচার হওয়া মানি লন্ডারিং কার্যক্রম বন্ধ করতে তারা ইউরোপিয়ান দেশগুলো সহ অন্যান্য দেশের সাথে সহযোগিতা জোরদার করবে।

এক বিবৃতিতে পিপলস ব্যাংক অব চায়না (PBOC) জানিয়েছে, সীমান্তবর্তী এলাকায় সহযোগিতা জোরদার করার মাধ্যমে তারা মানি লন্ডারিং বিরোধী নীতিমালা চালু করবে এছাড়া সেসব দেশের মধ্যে আর্থিক তথ্য বিনিময় করা হবে এবং অন্যান্য এলাকায় সম্পদ পুনরুদ্ধার করা হবে।

গত সপ্তাহে রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছিলো ইউরোপীয় পুলিশ সংস্থা ইউরোপোলের একজন সিনিয়র কর্মকর্তা সতর্ক করেছিলেন যে বাল্টিক রাজ্যেটিতে রাশিয়া ও চীন থেকে ফৌজদারি অর্থের বিপুল প্রবাহ লক্ষ্য করা যাচ্ছে যা অঞ্চলটিকে ঝুঁকিপূর্ণ করে তুলছে। এই সংবাদের জবাবে রয়টার্সকে মেইল করে বিবৃতিটি প্রকাশ করা হয়েছে।

মানি লন্ডারিংয়ের বিরুদ্ধে লড়াই করা বিশ্ব মানদণ্ডের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিন্যান্সিয়াল একশন টাস্ক ফোর্স (FATF) এর প্রকাশিত সাম্প্রতিক রিপোর্টে বলা হয়, “প্রতি বছর চীন থেকে বিপুল পরিমাণ অবৈধ অর্থ প্রবাহিত হয়।”

Forexmart

পিপলস ব্যাংক অব চায়না (PBOC) জানিয়েছে, “চীনা সরকার আচ করতে পেরেছিলো যে, অর্থ পাচার সহ সকল ধরনের অপরাধমূলক কার্যক্রমকে হ্রাস করার কোন চেষ্টা করা হয়নি।”

ব্যাংকটি ২০১৪ সাল থেকে ২০১৬ সালের মধ্যে ৯০ টির বেশি দেশ থেকে আগত অবৈধ তহবিলের মধ্যে ৮।৬ বিলিয়ন ইউয়ান ($১.২৫ বিলিয়ন ডলার) উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছে।  

ব্যাংকটি জানায়, “অবসসই এই অঞ্চলে উন্নতি করার অনেক সুযোগ রয়েছে এবং আমরা এই দিকগুলো শক্তিশালী করার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছি।”

আগামী পহেলা জুলাই থেকে ৩৮ সদস্য বিশিষ্ট ফিন্যান্সিয়াল একশন টাস্ক ফোর্স (FATF) এর প্রধানের পদে অধিষ্ঠিত হতে যাচ্ছে চীন।

সূত্র- investing.com

leave a reply