ADVERTISING

ট্রেড করার জন্যে COT প্রতিবেদন যেভাবে ব্যবহার করবেন

ট্রেড করার জন্যে COT প্রতিবেদন যেভাবে ব্যবহার করবেন ট্রেড করার জন্যে COT প্রতিবেদন যেভাবে ব্যবহার করবেন

ট্রেড করার জন্যে COT প্রতিবেদন যেভাবে ব্যবহার করবেন:- যেহেতু COT প্রতিবেদনটি প্রতি সপ্তাহে প্রকাশিত হয় তাই এই প্রতিবেদনটির প্রভাব দীর্ঘমেয়াদে সবচেয়ে বেশি পরিলক্ষিত হয় । COT প্রতিবেদনটি ব্যবহার করার এক অন্যতম উপায় হলো আপনাকে extreme net long অথবা extreme net short খুঁজে বের করতে হবে । কারণ এই ধরণের অবস্থান এর অস্তিত্ব খুঁজে বের করার অর্থ হলো যে চলমান ট্রেন্ডের reversal আসন্ন ।

নিম্নে EUR /USD এর একটি চার্ট দেয়া হলো ।

এই চার্টের উপরের দিকে আমরা EUR/USD পেয়ারের মূল্যের গতিবিধি বা price action দেখতে পাচ্ছি । আবার এই একই চার্টে EUR futures সম্পর্কিত Short এবং Long position এর তথ্যও পাচ্ছি । যাকে তিনভাগে ভাগ করা হয়েছে । যেমন:

১. বাণিজ্যিক ট্রেডার (নীল);

২. অবাণিজ্যিক ট্রেডার (সবুজ); ৩. খুচরা ট্রেডার (লাল)

Forexmart

এইবার দেখা যাক ২০০৮ সালের মাঝামাঝি কি ঘটেছে । আপনি নিশ্চই বুঝতে পারবেন যে EUR/USD পেয়ারটি জুলাই থেকে সেপ্টেম্বর মাসের মধ্যে শুধু পর্যন্ত অবস্থায় ছিল । যেহেতু অবাণিজ্যিক ট্রেডারদের Net Short Positions এর মান কমেছিল তার সাথে সাথে কমেছিল EUR/USD পেয়ারের মূল্যমানও ।

সেপ্টেম্বর মাসের মাঝামাঝি Net Short Position টি চূড়ান্ত পর্যায়ে গিয়ে 45,650 তে ঠেকেছিল । এটি অবশ্য বিনিয়োগকারী কর্তৃক EUR futures এর ক্রয় করার পড়ে হয়েছিল ।

ইতিমধ্যে, EUR/USD পেয়ারটি 1.2400 থেকে 1.4700 তে উঠেছিল ।

আগামী বছরজুড়ে EUR futures এর অবস্থা আস্তে আস্তে ইতিবাচক হলো । প্রত্যাশা অনুযায়ী EUR/USD পর্যায়ক্রমে বৃদ্ধি পেতে শুরু করলো এবং ১.৫১০০ তো পৌঁছালো ।

আবার ২০০৯ সালের অক্টোবরের প্রথম দিকে EUR futures এর net long position reversal এর ঠিক পূর্বে ৫১,০০০ তে গিয়ে ঠেকলো । এর কিছু সময় পরে EUR/USD পেয়ারটিও কম শুরু করলো |

এই পুরো অবস্থা বিশ্লেষণ করে বলা যায় যে, আপনি যদি COT প্রতিবেদনটি কাজে লাগাতেন তাহলে আপনি গতির দুইটি অস্বাভাবিক পরিবর্তন সময়ের পূর্বেই জেনে নিতে পারতেন ।

আপনি যদি দেখতেন যে, speculative ট্রেডারদের Short Position তার চরম পর্যায়ে পৌঁছেছে তাহলে EUR/USD পেয়ারটি 1.2300 তে থাকতেই কিনে ফেলতেন । ফলে আপনি 2000 পিপ্স অর্জন করতে পারতেন ।

আবার অন্যদিকে, আপনি যদি দেখতেন যে speculative ট্রেডারদের Long Position তার চরম পর্যায়ে পৌঁছেছে তাহলে EUR/USD পেয়ারটি ২০০৯ সালের নভেম্বর মাসে কিনে ফেলতেন ফলে আপনি পেতেন 1500 পিপ্স!

COT প্রতিবেদন ব্যবহার করে Tops এবং Bottoms যেভাবে ট্রেড করবেন

Short অথবা Long করার আদর্শ জায়গা হলো যখন একটি ট্রেন্ড তার চরম পর্যায়ে থাকে । পূর্বের উদাহরণে আপনি নিশ্চই দেখেছেন যে, speculators এবং commercial ট্রেডাররা পরস্পর বিরোধী signal প্রদান করে থাকে ।

Hedgers রা তখই ক্রয় করে যখন বাজার Bottom এ থাকে আবার অন্যদিকে, speculator রা তখনই বিক্রয় করে যখন বাজার নিচের দিকে যাচ্ছে ।

নিম্নে একটি COT চার্ট দেয়া হলো ।

বাজার যখন উপরেরদিকে যায় তখন Hedgers রা Bearish এবং speculators রা Bullish মনোভাব নিয়ে থাকে । ফলশ্রুতিতে, speculative positioning ট্রেন্ডের direction বা গতিমুখ এবং commercial positioning reversal বা গতিমুখ পরিবর্তনের signal বা ইঙ্গিত দেয় ।

যদি Hedgers রা তাদের Long positioning এবং speculators রা তাদের Short positioning বৃদ্ধি করতেই থাকে তাহলে বাজারের bottom বা তল খুব শীগ্রই দেখা দিবে । আবার অন্যদিকে, যদি Hedgers রা তাদের Short positioning এবং speculators রা তাদের Long positioning বৃদ্ধি করতেই থাকে তাহলে বাজারের top বা চূড়া খুব শীগ্রই দেখা দিবে ।

এইখানে এই কথাটি অবশ্যই মনে রাখতে হবে যে, sentiment এর extreme বা চরম পর্যায় কোন পয়েন্টে হবে । তাই এই অবস্থায় বাস্তবে reversal হওয়ার পূর্ব পর্যন্ত অপেক্ষা করাই শ্রেয়। যেহেতু speculators রা বেশিরভাগ ট্রেন্ডকে মনে চলে এবং reversal এর ক্ষেত্রে ভুল করে এবং commercial ট্রেডাররা reversal এ ভালো এবং ট্রেন্ড মেনে চলার দিকে দুর্বল তাই reversal হওয়ার পূর্ব পর্যন্ত speculators দেরকে অনুসরণ করাই ভালো ।

আপনার নিজের ব্যবহারের জন্যে একটি COT ট্রেডিং Indicator যেভাবে তৈরী করবেন

Short এবং Long Position নির্ধারণ অনেক সময়ে জটিল হতে পারে । আবার একটি নির্দিষ্ট বছরের extreme net Position অন্য বছরে অকার্যকর হয়ে যেতে পারে । তাই এই অবস্থায় আপনাকে একটি index বা সূচক তৈরী করতে হবে।

Extreme কে পরিমাপ করার জন্যে সূচক যেভাবে তৈরী করবেন

এই ধরণের সূচক তৈরী করার জন্যে দুটি ধাপ আছে । নিচে সেটি আলোচনা করা হলো ।

১. আপনি কত লম্বা সময় বিবেচনা করতে চাচ্ছেন প্রথমে তা নির্ধারণ করুন: আমরা এই সূচকে যত বেশি তথ্য দিবো sentiment সম্পর্কে ততই কম Extreme signal আসবে । আবার অন্যদিকে, কম তথ্য বেশি signal দিবে যা আবার অনেক সময় মিথ্যাও হতে পারে ।

২. Large Speculators এবং commercial Trader মধ্যেকার পার্থক্য গণনা করুন ।

Net Position of Large Speculators – Net Position of Commercial Traders = Difference

প্রথমে লক্ষ্য করুন Large speculators রা আকারে অনেক বড় কিনা । যদি তাই হয় তাহলে commercial trader রা আকারে অবশ্যই ছোট । এরকম অবস্থায় গণনাতে একটি ইতিবাচক সংখ্যা আসবে । আবার অন্যদিকে, Large speculators রা আকারে অনেক ছোট কিনা । যদি তাই হয় তাহলে commercial trader রা আকারে অবশ্যই বড় । এরকম অবস্থায় গণনাতে একটি নেতিবাচক সংখ্যা আসবে ।

১. এই ফলাফলগুলোকে একটি order এ সাজান । নেতিবাচক সংখ্যাগুলো প্রথমে তার পরে ইতিবাচক সংখ্যাগুলো আসবে;

২. সবচেয়ে বড় সংখ্যাকে ১০০ এবং সবচেয়ে ছোট সংখ্যাকে ০ নাম্বার দিন ।

এই পদ্ধতিতে আপনি একটি COT Indicator পাবেন । এটি অবশ্য RSI এবং Stochastic Indicator গুলোর মতোই । একবার গণনা করে প্রাপ্ত সংখ্যাগুলোকে আমাদের নিয়মানুযায়ী একটি নতুন সূচক সংখ্যা প্রদান করার পরে আমাদেরকে সবসময়ে সতর্ক থাকতে হবে যে, নতুন প্রাপ্ত তথ্যের মধ্যে কোনো Extreme বা চরম আকারের কোনো তথ্য আসছে কি না ।

যদি তাই হয়, তাহলে এই সূচকটি আমাদেরকে বলে দিবে যে, এই দুইটি দলের Position গুলোর মধ্যে বড় কোনটা এবং একটি reversal আসন্ন কিনা ।

এখানে এই কথা মনে রাখতে হবে যে, COT সূচক তৈরির পিছুনে আমাদের উদ্দেশ্য হলো যে, চলমান ট্রেন্ডটি কি চলমান থাকবে নাকি তার গতির মুখ পাল্টাবে ।

COT প্রতিবেদনটি কিভাবে ব্যাখ্যা করবেন

স্মরণ করুন যে, সকল sentiment Extreme বাজারের Top অথবা bottom এ পরিণত হয় না । তাই আমাদের দরকার আরেকটি Indicator এর যেটা কিনা আরো সুনির্দিষ্ট করে আমাদেরকে ইঙ্গিত দিবে । এই অবস্থায় বাজার Topping বা Bottoming করছে কিনা তা যাঁচাই করার জন্যে speculative Position এর Long এবং Short এর অবস্থার শতকরা হার (%) গণনা করতে হবে । শতকরা হার গণনা করার সূত্র নিম্নে দেয়া হলো।

উপরে দেয়া এই সূত্রগুলোর প্রয়োগের জন্যে আমাদেরকে কিছু বছর পূর্বের Canada এর Dollar এর Future কে নিয়ে একটি বিশ্লেষণ করতে হবে ।

২০০৮ সালের অগাস্ট মাসের COT প্রতিবেদন থেকে আমরা জানতে পাচ্ছি যে, speculators রা futures contracts এ net Sort ছিলো 28,085 । আবার ২০০৯ সালের মার্চের টো তারিখে তা ছিলো 23,950 তে ।

এই তথ্য থেকে আপনি হয়তো ধারণা করতে পারেন যে, অগাস্ট মাসে বাজারের bottom করার এক জোরালো সম্ভাবনা আছে । কারণ ঐ সময়কালে এমন অনেক speculators ছিলো যারা Sort করেছিল ।

নিম্নে দেয়া চার্টে দেখুন বাস্তবে তখন কি ঘটে ছিলো ।

ভালোভাবে লক্ষ্য করলে আপনি বুঝতে পারবেন যে, 66,726 contract এমন ছিলো যেগুলো Sort ছিলো আবার 38,641 টি contract Long ছিলো । এই অবস্থায় speculative Position এর শতকরা হার দাঁড়াবে (66,726/(38,641 + 66,726) = 63.3%। এটি ছিলো Sort Position এর হার ।

আবার অন্যদিকে, মার্চ মাসে মাত্র ৮,৭১৫ টি contract Long ছিলো । এবং 32,665 contract short ছিলো । এই অবস্থায় speculative Position এর শতকরা হার দাঁড়াবে (32,665/(8,715 + 32,665) = 78.9%। এর অর্থ কি দাঁড়ায়?

63.3% এর তুলনায় 78.9% এ bottom হবার সম্ভাবনা অনেক বেশি যদি এই হারের মধ্যে অধিকাংশ speculative Position short থাকে।

আপনি নিশ্চই চার্টে দেখতে পাচ্ছেন যে, বাজারের bottom হওয়াটি ২০০৮ এর অগাস্ট পর্যন্ত হয় নাই । তখন মার্কিন ডলারের তুলনায় কানাডীয় ডলারের মান ছিলো মাত্র 94 সেন্টস (cents)। এর পরে কিছু মাস পর্যন্ত কানাডীয় ডলারের পতন অব্যাহত থাকে । পরবর্তী বছর অর্থাৎ, ২০০৯ এর মার্চ মাস আসা পর্যন্ত Sort ratio দাঁড়ালো 78.9% এ। এই সময়ে মার্কিন ডলারের তুলনায় কানাডীয় ডলারের মান ছিলো মাত্র 77 সেন্টস।

এরপরে কি হলো? কানাডার ডলার উপরে উঠা শুরু করলো অর্থাৎ ওটাই ছিলো বাজারের bottom ।

leave a reply