নির্বাচনী প্রচারনা আবার শুরু হবে: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোলান্ড ট্রাম্প

নির্বাচনী প্রচারনা আবার শুরু হবে: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোলান্ড ট্রাম্প নির্বাচনী প্রচারনা আবার শুরু হবে: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোলান্ড ট্রাম্প

MarketDeal24.Com – বুধবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোলান্ড ট্রাম্প বলেছেন যে, তিনি ওকলাহোমা এর তুলসায় জনগণের মাঝে শীঘ্রই আবারো প্রচারণা সমাবেশ শুরু করতে চাইছেন। 

এছাড়া ট্রাম্প হোয়াইট হাউসে এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের বলেছিলেন যে, তিনি রাষ্ট্রপতির জন্য রিপাবলিকান পার্টির মনোনয়ন স্বীকার করে আগস্টে ভাষণের জন্য নতুন স্থানের নাম ঘোষণা করবেন।

এদিকে ক্যাম্পেইন এর পরামর্শদাতারা বলছেন যে, সম্সামেলনের অ্টিআগামী ফ্লোরিডার জ্যাকসনভিলের হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

যদিও ট্রাম্প বলেছেন যে টেক্সাস এবং জর্জিয়ায় মধ্যেই হওয়ার সম্ভাবনা বেশী। 

Forexmart

এছাড়া বৃহস্পতিবার ডালাসে, ট্রাম্প করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাবের পরে প্রথম বারের মত তার ব্যক্তি তহবিলের অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন।

ট্রাম্প ৩রা নভেম্বরের নির্বাচনের আগে তার প্রার্থিতা প্রচারের জন্য রাস্তায় ফিরে আসতে আগ্রহী ছিলেন। কিন্তু করোনা ভাইরাস এর কারণে দেয়া লকডাউনের তিন মাস তার সেই ভাবনার অনেকটাই বদলে দিয়েছে।

অন্যদিকে এই অন্তর্বর্তীকালীন সময়ে ট্রাম্পের ভাইরাস পরিচালনার বিষয়ে ব্যার্থতা এবং আফ্রো-আমেরিকান জর্জ ফ্লয়েডের মিনিয়াপলিস পুলিশ হেফাজতে মৃত্যুর প্রতিবাদে যে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছিল, তা তার ভোট ব্যাংকের অনেকটাই ক্ষয় করেছে।

ট্রাম্প ফ্লয়েডের মৃত্যুর ঘটনাটিকে ‘মারাত্মক ট্র্যাজেডি’ বলে অভিহিত করেছেন তবে এখন পর্যন্ত জাতিগত সম্পর্কের উন্নতির জন্য কোনো পদক্ষেপের প্রস্তাব দেননি।

তিনি শুধু বলেন যে ১৯শে জুন তুলসায় তাঁর প্রথম সমাবেশের হবে বলে তিনি আশা করছেন। এবং এরপরে ফ্লোরিডা, টেক্সাস এবং অ্যারিজোনায় সমাবেশ করবেন।

মার্কিন সংবিধান

মার্কিন সংবিধান দাসপ্রথা থেকে আফ্রো-আমেরিকানদের 1865 সালের ১৯ শে জুন মুক্তি দিয়েছিল। যেই কারনে ১৯ শে জুন এক হিসাবে বেশ পরিচিত।

আর  তুলসাতে 1921 সালে সাদা বাসিন্দারা কৃষ্ণাঙ্গ বাসিন্দা ও ব্যবসায়িকদের উপর আক্রমণ করেছিল। যা তুলসা রেস গণহত্যা নামে পরিচিত।

এদিকে ট্রাম্পের গণতান্ত্রিক নির্বাচনের বিরোধী জো বাইডেনের রাষ্ট্রপতি প্রচারনার মুখপাত্র কামু মার্শাল টুইটারে ট্রাম্পের ভেন্যুটিকে “বর্ণবাদী” হিসাবে বেছে নেওয়ার নিন্দা করেছেন।

অন্যদিকে রিপাবলিকান ন্যাশনাল কনভেনশনে ট্রাম্প সমাবেশ করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু মহামারী চলাকালীন সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য ট্রাম্প যে ভীড়ের আকার চেয়েছিলেন তা মঞ্জুর করতে রাজ্যটির ডেমোক্রেট গভর্নর রায় কুপার প্রত্যাখ্যান করছেন।

ট্রাম্প গভর্নরকে “পিছনে পরে থাকা লোক” হিসেবে আখ্যায়িত করে বলেন যে, “দুর্ভাগ্যক্রমে আমাদের সম্ভবত রিপাবলিকান সম্মেলনকে অন্য জায়গায় সরিয়ে নেওয়া ছাড়া আর কোনো উপায় থাকবে না। তবে শিগগিরই নতুন স্থান ঘোষণা করা হবে।”

ট্রাম্প এবং তার প্রচার কমিটি অন্যান্য সাইট সন্ধান করছেন। যেখানে সম্মেলন করা সম্ভব।

EUR/USD: ফান্ডামেন্টাল এনালাইসিস | ১১ই জুন, ২০২০

leave a reply