প্রত্যাশার চেয়ে শক্তিশালী মার্কিন অর্থনৈতিক প্রতিবেদনের কারণে দেশটির মুদ্রা ডলারের মূল্যমানে উন্নতি; কমোডিটি নির্ভর মুদ্রাগুলোর মূল্যমানে পতন

0
124 views
প্রত্যাশার চেয়ে শক্তিশালী মার্কিন অর্থনৈতিক প্রতিবেদনের কারণে দেশটির মুদ্রা ডলারের মূল্যমানে উন্নতি; কমোডিটি নির্ভর মুদ্রাগুলোর মূল্যমানে পতন
প্রত্যাশার চেয়ে শক্তিশালী মার্কিন অর্থনৈতিক প্রতিবেদনের কারণে দেশটির মুদ্রা ডলারের মূল্যমানে উন্নতি; কমোডিটি নির্ভর মুদ্রাগুলোর মূল্যমানে পতন

টোকিও (রয়টার্স) – বিশ্বের সর্ববৃহৎ অর্থনীতি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রকাশিত হওয়া শ্রমবাজার এবং মুদ্রাস্ফীতি বিষয়ক শক্তিশালী প্রতিবেদনের কারণে মুদ্রাবাজারে দেশটির মুদ্রা মার্কিন ডলার ভালো অবস্থানে। এদিকে, অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের মূল্য কমে যাওয়ায় কানাডা এবং অস্ট্রেলিয়ার মুদ্রাগুলো তাদের মূল্যমানে কমেছে।

যা বিশ্বের ছয়টি প্রধান মুদ্রাগুলোর বিপরীতে মার্কিন মুদ্রা ডলারের মূল্যমানকে নির্ধারিত করে থাকে, তা গত ট্রেডিং সেশনে তার মূল্যমানের 0.25% হরে বৃদ্ধি পেয়ে আজ শুক্রবারে 97.166 পয়েন্টে স্থিতিশীল অবস্থায় আছে।

এদিকে জাপানি মুদ্রা ইয়েনের বিপরীতে মার্কিন ডলার ¥111.72 তে অপরিবর্তিত ছিলো। তবে মার্কিন মুদ্রার অগ্রগতি ¥112.00 এই পর্যায়ের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের উৎপাদক পর্যায়ের মুদ্রাস্ফীতির তথ্য প্রকাশিত হওয়ার পরে অনেক বিনিয়োগকারীরা বাজার সম্পর্কে dovish মনোভাব পোষণ করা শুরু করেন কিন্তু গতকালের প্রতিবেদনের পরে তারা বাধ্য হচ্ছেন নিজেদের অবস্থানকে পাল্টাতে।

এর পূর্বে US Dollar সূচকটি 0.25% হরে সাপ্তাহিক ক্ষতির সম্মুখীন হয় যার পেছনে মার্কিন কর্মসংস্থান সম্পর্কিত NFP তথ্যের দরুন ট্রেজারী বন্ডের লভ্যাংশের পরিমান কমে যাওয়া দায়ী।

গতকাল বৃহস্পতিবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বেকার ভাতা সম্পর্কিত তথ্যভিত্তিক প্রতিবেদন প্রকাশিত হয় যাতে এই ভাতা দাবি করার পরিমান গত সাড়ে ঊনপঞ্চাশ বছরের মধ্যে সবচেয়ে নিম্নে থাকার বিষয়টি উঠে আসে, যা শ্রমবাজারের একটি টেকসই অবস্থানকে ইঙ্গিত করে। সামগ্রিকভাবে উৎপাদক পর্যায়ের মুদ্রাস্ফীতি গত মার্চ মাসে 0.6% হরে বৃদ্ধি পায়।

এদিকে কোমোডিটির মূল্য নির্ভর মুদ্রাগুলোর মধ্যে কানাডার ডলার মার্কিন ডলারের বিপরীতে C$1.3385 এই পর্যায়ে কমবেশি অনেকটা স্থিতিশীল ছিলো। যা তার পূর্বের ট্রেডিং সেশনে তার মূল্যমানের 0.5% কে হারায়। এর জন্যে অবশ্য আন্তর্জাতিক বাজারে অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের মূল্যে কমতি দায়ী।

অস্ট্রেলিয়ান ডলার মার্কিন ডলারের বিপরীতে তার মূল্যমানের 0.1% কে হারিয়ে এখন $0.7117 তে অবস্থান করছে। আন্তর্জাতিক বাজারে কপারের মূল্যে কমতি এবং রাজনৈতিক অস্থিরতা চাঁপ সৃষ্ট করে চলেছে অস্ট্রেলিয়ার মুদ্রার উপরে।

এদিকে আসছে মে মাসের ৮ তারিখে অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন দেশটির জাতীয় সংসদের সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন।

তাছাড়া, কোমোডিটির মূল্য নির্ভর আরেক মুদ্রা নিউজিল্যান্ড ডলারও মার্কিন মুদ্রা ডলারের বিপরীতে তার মূল্যমানে কমে এখন $0.6714 তে অবস্থান করছে, যা গত জানুয়ারী মাসের ২২ তারিখেরতুলনায় সবচেয়ে কম।

Facebook Comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.