প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিশংসন প্রক্রিয়া শুরু হওয়ায় মার্কিন পুঁজিবাজারে ধস

0
80 views
প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিশংসন প্রক্রিয়া শুরু হওয়ায় মার্কিন পুঁজিবাজারে ধস
প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিশংসন প্রক্রিয়া শুরু হওয়ায় মার্কিন পুঁজিবাজারে ধস

MarketDeal24.Com – মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে দেশটির আইনসভার দ্বারা অভিশংসনের প্রক্রিয়া আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হওয়ায়, আজ বৃহস্পতিবার, সপ্তাহের চতুর্থ কার্যদিবসে দেশটির পুঁজিবাজার ওয়ালস্ট্রিট এ ধস লক্ষ্য করা যাচ্ছে।

আজ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পূর্বাঞ্চলীয় সময় সকাল ৯টা ৫৫মিনিটে দেশটির পুঁজিবাজারের সবচেয়ে জনপ্রিয় সূচক S&P 500 তার মানে ১০ পয়েন্টস বা ০.৩% হারে হ্রাস পায়, Dow হারিয়েছে ৩৫ পয়েন্টস বা ০.১%। অন্যদিকে, প্রযুক্তিভিত্তিক Nasdaq তার মানে কমেছে ৪৬ পয়েন্টস বা ০.৬%।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আইনসভা কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ হাউস অব রিপ্রেসেন্টেটিভ এর ইন্টেলিজেন্স কমিটি সাম্প্রতিক সময়ে ডিক্লাসিফাইড হওয়া একটি নথি প্রকাশ করেছে। উল্লেখ্য, ঐ নথি অনুসারে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ২০২০ সালে অনুষ্ঠিতব্য প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে তার সম্ভাব্য প্রতিপক্ষ জো বাইডেন এর পুত্র হান্টার বাইডেন এর বিরুদ্ধে ইউক্রেইন্ সরকারকে তদন্ত করার নির্দেশ দেবার প্রমান পাওয়া যায়।

ঐ নথিতে আরো উঠে আসে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প কর্তৃক বেআইনিভাবে তার রাজনৈতিক প্রতিপক্ষের ফোনালাপ রেকর্ড করার কথা। যদিও ইন্টেলিজেন্স কমিটির নিকট ঐ নথিটি প্রকাশের অনুমতি খোদ প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প দিয়েছেন এই বলে যে, তার কাছে লুকিয়ে রাখার মতো কিছুই নেই, তবুও তা ট্রাম্পের রাজনৈতিক ভবিষ্যতের জন্যে কুফল বয়ে নিয়ে আসতে পারে।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিশংসনের প্রক্রিয়া শুরু

মার্কিন আইনসভার নিম্নকক্ষ গত মঙ্গলবার প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিশংসনের প্রক্রিয়া শুরু করলে দেশটির পুঁজিবাজার অনুভব করতে থাকে শেয়ারগুলোর মূল্যমানে পতন। তবে, ট্রাম্প কর্তৃক চীনের সাথে চলমান বাণিজ্য যুদ্ধের বিষয়ে কিছু ইতিবাচক সংবাদের ঘোষণায় বাজার আবার তার স্বাভাবিকতা ফিরে পায়।

বাণিজ্য চুক্তি সম্পর্কে বোকেহ ক্যাপিটাল পার্টনারস এর প্রধান বিনিয়োগ কর্মকর্তা কিম ফরেস্ট বলেন, “আমাদের প্রয়োজন একটি বাণিজ্য চুক্তির। আর কোনো ধরণের চুক্তি ছাড়া আমরা শুধু এদিক ওদিক ঘুরাঘুরি করে সময় নষ্ট করবো শুধুশুধু।”

এদিকে, যা বিশ্বের প্রধান ছয়টি মুদ্রাগুলোর বিপরীতে মার্কিন মুদ্রা ডলারের মূল্যমানকে নির্ধারিত করে থাকে, তা তার মূল্যমানে ০.২% কে হারিয়ে এখন হয়েছে ৯৮.৪৮৮ পয়েন্টস। স্বর্ণের ফিউচারস তার মূল্যমানে বৃদ্ধি পেয়েছে ০.৪% হারে, যা এখন $১,৫১৭.৭৫ মার্কিন ডলার ত্রয় আউন্স। অন্যদিকে, অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের ফিউচারস তার মূল্যমানে হারিয়েছে ১.২% কে। যার মূল্যমান এখন থাকছে $৫৫.৮৮ প্রতি ব্যারেল।

IC MARKETS ব্রোকার এ একাউন্ট খুলুন – http://bit.ly/2Jd7FsO

Facebook Comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.