ফরেক্স ট্রেডিং সেশন সমূহ

0
503 views

ফরেক্স ট্রেডিং সেশনসমূহ: এতক্ষনের আলোচনায় আমরা বুঝেছি ফরেক্স কি? কেন আপনি এই বাজারে লেনদেন করবেন? করা এই বাজারের মূল লেনদেনকারী? এইবার আমরা আসি এই বাজারে ট্রেড করার সেশন বা সময়ের বিষয়ে ।

ফরেক্স মার্কেটের ট্রেডিং সেশনকে প্রধানত চারটি ভাগে ভাগ করা যায় | যেমন: সিডনি সেশন, টোকিও সেশন, লন্ডন সেশন, এবং নিউইয়র্ক সেশন | প্রতিটি সেশনের খোলা এবং বন্ধের সময়সূচি নিম্নে তুলে ধরা হলো:

Spring/Summer in the U.S. (March/April – October/November)

Local Time EDT BST (GMT+1)
Sydney Open – 7:00 AM Sydney Close  – 4:00 PM 5:00PM 2:00AM 10:00PM 7:00AM
Tokyo Open – 9:00AM Tokyo Close – 6:00PM 8:00PM 5:00AM 1:00PM 10:00AM
London Open – 8:00AM London Close – 4:00PM 3:00AM 11:00AM 8:00AM 4:00PM
New York Open – 8:00AM New York Close – 5:00PM 8:00AM 5:00PM 1:00PM 10:00AM

Fall/Winter in the U.S. (October/November – March/April)

Local Time EDT BST (GMT+1)
Sydney Open – 7:00 AM Sydney Close  – 4:00 PM 3:00PM 12:00AM 8:00PM 5:00AM
Tokyo Open – 9:00AM Tokyo Close – 6:00PM 7:00PM 4:00AM 12:00AM 9:00AM
London Open – 8:00AM London Close – 4:00PM 3:00AM 11:00AM 8:00AM 4:00PM
New York Open – 8:00AM New York Close – 5:00PM 8:00AM 5:00PM 1:00PM 10:00PM

সময়সূচির পরে এইবার প্রত্যেকটি সেশনে পিপ্স এর গড় উঠানামার চিত্র নামে তালিকাভুক্ত করা হলো:

Pair Tokyo London New York
EUR/USD 76 114 92
GBP/USD 92 127 99
USD/JPY 51 66 59
AUD/USD 77 83 81
NZD/USD 62 72 70
USD/CAD 57 96 96
USD/CHF 67 102 83
EUR/JPY 102 129 107
GBP/JPY 118 151 132
AUD/JPY 98 107 103
EUR/GBP 78 61 47
EUR/CHF 79 109 84

টোকিও সেশন (Tokyo Session): এশিয়ান সেশন শুরু হয় জিএমটি সময় রাত ১২টা অর্থাৎ তখন জাপানে সকাল ৯টা এবং বাংলাদেশে ভোর ৬টা | এখানে জেনে রাখা দরকার যে টোকিও সেশনকে এশিয়ান সেশন বলা হয় কারণ টোকিও হলো এশিয়া মহাদেশের আর্থিক রাজধানী | উল্লেখ্য, জাপান হলো বিশ্বে তৃতীয় বৃহৎ ফরেক্স বাণিজ্যের কেন্দ্র |

তাছাড়া, জাপানের মুদ্রা ইয়েন হলো ফরেক্সে লেনদেনকৃত তৃতীয় বৃহৎ মুদ্রা যার অংশ হলো 16.50% | এই সেশনের অন্যতম বৈশিষ্ট্য হলো এতে ফরেক্স মার্কেটের মোট লেনদেনের 21% ই সংগঠিত হয়ে থাকে |

এই সেশনে লেনদেনের দ্বারা পিপ্স কতটুকু প্রভাবিত হয় তা নিম্নের তালিকায় উপস্থাপিত করা হলো:

EUR/USD GBP/USD USD/JPY AUD/USD NZD/USD USD/CAD USD/CHF EUR/JPY GBP/JPY AUD/JPY EUR/GBP EUR/CHF
56 54 30 65 58 39 40 57 72 65 23

তবে আলোচনার এই পর্যায়ে জাপানের এই সেশনের ব্যপারে কিছু অতি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় জেনে রাখা দরকার | যেমন:

* এই সেশনে ঘটে যাওয়া লেনদেনের প্রভাব শুধু জাপানের মধ্যেই সীমাবদ্ধ নয় বরং এশিয়ার অন্যান্য অর্থ বাজার কেন্দ্র হংকং, সিঙ্গাপুর, এবং সিডনিতেও এই সেশনে লেনদেন হয়ে থাকে |

* টোকিও সেশনে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে প্রধান হলো বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানগুলো এবং এই অঞ্চলের কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্কসমূহ | এখানে মনে রাখতে হবে যে জাপানের অর্থনীতি অনেকটা রপ্তানি নির্ভর তাই দেশটির উপর তার বাণিজ্যিক সহযোগী চীনেরও অনেক প্রভাব রয়েছে |

*এই সেশনে অনেক সময় তারল্যের ঘাটতি দেখা দেয় |

*এই সেশনের অন্যতম বৈশিষ্ট্য হলো যে এতে এশিয়া মহাদেশের সাথে সম্পর্কিত কারেন্সী পেয়ারে অধিক গতিবিধি লক্ষ্য করা যায় |

* এই সেশনে যখন সময়ে সময়ে তারল্যের ঘাটতি দেখা যায় তখন শর্ট ডে ট্রেডেররা (short day trader) এইটাকে সুযোগ হিসেবে নেয় |

*এই সেশনে বেশিরভাগ লেনদেনই দিনের প্রথমদিকে হয়ে যায় কারণ তখনই অর্থনীতি সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ তথ্যগুলো প্রকাশিত হয় |

এই সেশনে কোন কারেন্সী পেয়ারে লেনদেন করা ভালো:

ভৌগোলিকভাবে নিকটবর্তী হয়ে অস্ট্রেলিয়া এবং নিউজিল্যান্ডের অর্থনৈতিক এবং বাণিজ্যিক বিভিন্ন তথ্যের প্রভাব এতে লক্ষ্য করা যায় | শুধুমাত্র খবরের প্রভাবের উপর ভিত্তি করে যারা লেনদেন করেন তাদের জন্য এই সেশন হলো খুবই সুযোগপূর্ণ |

অন্যদিকে চীন একটি অর্থনৈতিক শক্তি হওয়ায়, দেশটির অর্থনীতি সম্পর্কে প্রকাশিত তথ্য এই সেশনে অস্থিতিশীলতার সৃষ্টি করে | বাণিজ্যের স্বার্থে চীনের উপর অস্ট্রেলিয়া এবং জাপানের খুব বেশি নির্ভরশীলতা থাকায় পেয়ারগুলোতে একটু বেশিই গতিবিধি পরিলক্ষিত হয় |

লন্ডন সেশন (London Session): এশিয়ান ট্রেডাররা যখন তাদের ট্রেড বা লেনদেন শেষ করার পর্যায়ে ঠিক তখনই লন্ডন সেশনে লেনদেন শুরু হয় | ইউরোপ মহাদেশে অনেকগুলো অর্থনৈতিক কেন্দ্র থাকলেও লন্ডন সেশনের দিকে নজর থাকে প্রায় সবগুলো ট্রেডারদের | লন্ডনকে বলা হয় গোটা বিশ্বের ফরেক্স এর রাজধানী | তথ্যমতে, ফরেক্স মার্কেটে বিশ্বব্যাপী মোট লেনদেনের 30% ই হয়ে থাকে ই লন্ডন সেশনে |

এই সেশনে লেনদেনের দ্বারা পিপ্স কতটুকু প্রভাবিত হয় তা নিম্নের তালিকায় উপস্থাপিত করা হলো:

EUR/USD GBP/USD USD/JPY AUD/USD NZD/USD USD/CAD USD/CHF EUR/JPY GBP/JPY AUD/JPY EUR/GBP EUR/CHF
83 82 36 60 64 66 58 80 102 86 40

লন্ডন সেশন সম্পর্কে কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য:

*যেহেতু লন্ডন সেশনের সময়কাল অন্য দুই প্রধান সেশন এর ঠিক মাঝামাঝি সময় অবস্থিত তাই এই সেশনে বেশিরভাগ লেনদেন সংগঠিত হয় | ফলে, এই সেশনে তারল্য প্রচুর থাকে এবং লেনদের সাথে জড়িত আনুষঙ্গিক ব্যয় থাকে অনেক কম ।

*অধিকাংশ লেনদেন এই সেশনে সংগঠিত হওয়ার কারণে এই সেশন অনেক অস্থিতিশীল ।

*ফরেক্স মার্কেটের বেশিরভাগ ট্রেন্ড শুরু হয় এই লন্ডন সেশনে যা নিউইয়র্ক সেশন শুরু হওয়ার আগে পর্যন্ত চলমান থাকে ।

*লন্ডনে দুপুরের সময় বেশিরভাগ ট্রেডাররা দুপুরের খাবার খেতে যাওয়ার কারণে ওই সময় বাজারের অস্থিতিশীলতা অনেকটা কমে আসে যা নিউইয়র্ক সেশন শুরু হওয়া পর্যন্ত একই রকম থাকে ।

এই সেশনের অন্যতম প্রধান বৈশিষ্ট্য হলো, এই সময়কালে যেহেতু লেনদেনের পরিমান অনেক বেশি থাকে তাই তারল্যে বাজারটি থাকে পরিপূর্ণ । ফলে এই সেশনে যে কোনো পেয়ারে বিনিয়োগ করা যায় । 

নিউইয়র্ক সেশন (New York Session): ইউরোপিয়ান ট্রেডাররা তাদের দুপুরের খাবার সেরে কাজে যোগদান করা মাত্রই নিউ ইয়র্ক সেশনের সময়কাল শুরু হয় | ইউরোপ এবং এশিয়ার মতোই বিশ্বের ওই প্রান্তে অর্থ বাজারের একটি প্রধান কেন্দ্র রয়েছে যার নাম হলো নিউ ইয়র্ক |

এই সেশনে লেনদেনের দ্বারা পিপ্স কতটুকু প্রভাবিত হয় তা নিম্নের তালিকায় উপস্থাপিত করা হলো:

EUR/USD GBP/USD USD/JPY AUD/USD NZD/USD USD/CAD USD/CHF EUR/JPY GBP/JPY AUD/JPY EUR/GBP EUR/CHF
77 68 34 68 62 67 56 72 77 71 36

নিউইয়র্ক সেশনের ব্যাপারে কিছু বিষয় যা লেনদেনকারী জেনে রাখা দরকার:

*লন্ডন সেশন এবং নিউইয়র্ক সেশনের সময়কালের কিছু অংশের মিল হওয়ায় নিউইয়র্ক সেশন শুরুর দিকে অনেক তরল থাকে |

*বেশিরভাগ অর্থনৈতিক প্রতিবেদনগুলো এই সেশন শুরু হওয়ার প্রথম দিকেই জনসম্মুক্ষে চলে আসে তাই এই সেশনে অর্থ বাজারে বড় ধরণের পরিবর্তন দেখা যায় |

*এই সেশন তার সময়ের মাঝামাঝি আসা পর্যন্ত লন্ডন সেশনের সময়কাল শেষ হয়ে যায় । ফলে দিনের মধ্যাহ্ন থেকে এই বাজারে তারল্য এবং অস্থিতিশীলতা কমে যায় ।

*শুক্রবার বিকালের দিকে এই বাজারে খুব সামান্যই গতিবিধি দেখা যায় কারণ তখন বিশ্বের অধিকাংশ লেনদেনকারীরা তাদের সাপ্তাহিক হিসেব গুটিয়ে ফেলে |

ফরেক্সে লেনদেন করার জন্যে সপ্তাহের ভালো দিনগুলো:

পূর্বের আলোচনা থেকে আমরা জানতে পেরেছি যে দিনে লন্ডন সেশন হলো ফরেক্সে লেনদেনের দিক থেকে সবচেয়ে কর্মব্যস্ত সময় | কিন্তু এর অর্থ এই নয় যে সপ্তাহে বিশেষ কিছু দিন নেই যখন ফরেক্স মার্কেটে কর্মচাঞ্চল্য অন্য দিনগুলোর তুলনায় বেশি থাকে | ফরেক্স বা আন্তর্জাতিক অর্থবাজারে লেনদেন করে লাভবান হওয়ার জন্যে সপ্তাহে কিছু দিন রয়েছে যেই দিনগুলোতে অন্যদিনগুলোর তুলনায় কারেন্সী পেয়ারের পিপ্স বেশি উঠা নামা করে | নিচে তালিকা আকারে তা তুলে ধরা হলো:

Pair Sunday Monday Tuesday Wednesday Thursday Friday
EUR/USD 69 109 142 136 145 144
GBP/USD 73 149 172 152 169 179
USD/JPY 41 65 82 91 124 98
AUD/USD 58 84 114 99 115 111
NZD/USD 28 81 98 87 100 96
USD/CAD 43 93 112 106 120 125
USD/CHF 55 84 119 107 104 116
EUR/JPY 19 133 178 159 223 192
GBP/JPY 100 169 213 179 270 232
EUR/GBP 35 74 81 79 75 91
EUR/CHF 35 55 55 64 87 76

ট্রেড করার সর্বশ্রেষ্ঠ সময়:

* যখন দুইটি ভিন্ন সেশনের মধ্যে সময়ের মিলগত কারণে ওভারল্যাপিং হয় |

*অন্য দুইটি সেশনের তুলনায় ইউরোপিয়ান সেশন বেশি কর্মব্যস্ত |

*সপ্তাহের মাঝামাঝি দিনগুলোতে কারেন্সী পেয়ারে পিপ্স এর বেশি গতিবিধি লক্ষ্য করা যায় |

ট্রেড করার জন্যে অনুচিত সময়:

*রবিবার – এই দিন হলো পশ্চিমা বিশ্বে সাপ্তাহিক ছুটির দিন | তাই এই দিন ট্রেড না করাই ভালো |

*শুক্রবার – এই দিন মার্কিন সেশনের শেষ পর্যায়ে তারল্য অনেকটা কমে যায় |

*ছুটির দিনগুলোতে – বেশিরভাগ মানুষ এই দিনগুলোতে কর্মবিরতিতে থাকে |

*গুরুত্বপূর্ণ খবর প্রকাশিত হওয়ার সময় |

পূর্ববর্তী পরবর্তী

Facebook Comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.