ফেডারেল রিজার্ভের মিটিং ডলারের মূল্যে ভালো নাকি খারাপ প্রভাব ফেলবে?

FOMC FOMC

FOMC – বুধবারের মার্কেটে এই সপ্তাহের সবচেয়ে বড় ঝুঁকিপূর্ণ ইভেন্ট হলো ফেডারেল রিজার্ভের অর্থনৈতিক নীতিমালার ঘোষণা।

এই নিয়ে কিছু বিনিয়োগকারীরা সংশয় এর মধ্যে আছে যে এটি মার্কিন ডলারের উপরে কিরকম প্রভাব ফেলবে।

সোমবারে, মার্কিন ডলার বাকি সব প্রধান মুদ্রাগুলোর বিপরীতে নিম্নমুখী অবস্থানে ছিলো ফেডারেল রিজার্ভের ধোয়াশাপূর্ন অবস্থানের কারণে।

কিন্তু গতকালকে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা যায়। জাপানিজ ইয়েনের বিপরীতে মুল্যহ্রাস পেলেও ইউরোর বিপরীতে মূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে মার্কিন ডলারের।

Forexmart

অন্যান্য মুদ্রা যেমন স্টারলিং, কানাডিয়ান ডলার, অস্ট্রেলিয়ান ও নিউজিল্যান্ডের ডলার মার্কিন ডলারের বিপরীতে মূল্য বৃদ্ধি করলেও পূর্ববর্তী সর্বোচ্চ পর্যায় থেকে হ্রাস পেয়েছে।

বিনিয়োগকারীরা কেনো ডলার BUY করছে?

টানা তৃতীয় দিনের মতো শেয়ার বাজার ঊর্ধ্বমুখী অবস্থায় রয়েছে তাই বলা যায় যে মার্কেটে ঝুকির জন্য ডলার BUY করছে না।

ট্রেজারি ইয়েল্ড কিছুটা বৃদ্ধি পেয়েছে যা ডলারকে সাহায্য করেছে কিন্তু সবচেয়ে বেশী সাহায্য করেছে এম্পায়ার ষ্টেট ম্যানুফেকচারিং ইনডেক্স এর ব্যাপক বৃদ্ধি পাওয়া।

অর্থনীতিবিদরা ধারনা করেছিলো যে পূর্বের ৩.৭ থেকে বৃদ্ধি পেয়ে ৬.৯ এ যাবে ইনডেক্স। কিন্তু এটি বর্তমানে ১৭ তে অবস্থান করছে।

নিউইয়র্কে করোনার সংক্রমন হ্রাস পাওয়া ও প্রতিনিয়ত সব ব্যবসা খুলে দেওয়ার ফলে উৎপাদন খাতে ব্যাপক উন্নতি হয়েছে, যা কিনা ২০১৮ এর পরে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ গতিতে হয়েছে।

আজকে ফেডারেল রিজার্ভ আবার যখন আলোচনায় বসবে, অর্থনৈতিক নীতিমালায় কোনো পরিবর্তন আশা করা হচ্ছে না।

আজকের প্রধান আলোচনার বিষয় থাকবে অর্থনৈতিক পূর্বাভাস এবং ডট প্লট পূর্বাভাস।

আমরা জানি যে ফেডারেল রিজার্ভের এই মিটিংয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নতুন মুদ্রাস্ফীতি কৌশল নিয়ে আলোচনা করা হবে।

আগস্ট মাসে ফেড চেয়ারম্যান জেরোমে পাওয়েল মুদ্রাস্ফীতির জন্য নতুন একটি কাঠামো এর ঘোষণা দেন যা লং টার্মে মূল্য স্থিতিশীল রেখে টার্গেট পূরণ করতে সক্ষম হবে।

নতুন এই কৌশল এর পিছনে কারণ হলো গত এক দশক ধরে তাদের ২% টার্গেট পূরণে ব্যার্থতা।

অর্থনৈতিক পূর্বাভাস

আজকের অর্থনৈতিক পূর্বাভাস ও ডট প্লট দ্বারা বুঝা যাবে যে কিভাবে তারা তাদের টার্গেট পূরণ করবে। যাইহোক, আজকে হয়তো ফেডারেল রিজার্ভ তাদের অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি বৃদ্ধি করার ঘোষণা দিতে পারে, যা কিনা মার্কিন ডলারের মূল্য বৃদ্ধি করার জন্য যথেষ্ট।

জুলাই মাসের তাদের গত মিটিং এর পরে ভোক্তা ব্যয় হ্রাস পেয়েছে , কনফিডেন্স হ্রাস পেয়েছে এবং চাকরীর বাজার মন্থর হয়ে গিয়েছিলো।

যদিও হাউজ মার্কেটে উন্নতি হয়েছিলো, এছাড়া উৎপাদন ও বৃদ্ধি পেয়েছিলো। যার ফলে পাওয়েল মুদ্রাস্ফীতি নিয়ে নতুন ঘোষণা দেওয়ার পরে ডলারের মূল্য হ্রাস না পেয়ে বৃদ্ধি পেয়েছিলো।

এইবার ও পাওয়েলের বক্তব্য ডলারের উপর প্রভাব ফেলতে যাচ্ছে যেহেতু সে ভাইরাস দ্বারা ক্ষতি হওয়া ছাড়া সর্বসাকুল্যে অর্থনীতিকে সমৃদ্ধ বলে আখ্যায়িত করেছে।

তা আমরা অবাক হবো না যদি ফেড এর মিটিং এর পরে ডলারের মূল্য বৃদ্ধি পায়।

তবে মুদ্রাফীতির হার হ্রাস পেলে প্রাথমিকভাবে ডলারের মূল্য কিছুটা হ্রাস পেতে পারে, কিন্তু দিনশেষে তা ঊর্ধ্বমুখী থাকবে। এছাড়া অর্থনৈতিক নীতিমালা ঘোষণার আগে মার্কিন খুচরা বিক্রির ডাটা প্রকাশিত হবে।

ফেডারেল রিজার্ভের মিটিং ডলারের মুল্যে ভালো নাকি খারাপ প্রভাব ফেলবে?
ফেডারেল রিজার্ভের মিটিং ডলারের মুল্যে ভালো নাকি খারাপ প্রভাব ফেলবে?

leave a reply