বাংলাদেশের অর্থনীতি; মার্চে মুদ্রাস্ফীতি ঊর্ধ্বমুখী

বাংলাদেশের অর্থনীতি; মার্চে মুদ্রাস্ফীতি ঊর্ধ্বমুখী বাংলাদেশের অর্থনীতি; মার্চে মুদ্রাস্ফীতি ঊর্ধ্বমুখী

MarketDeal24.Com – বাংলাদেশে মুদ্রাস্ফীতি মার্চে ঊর্ধ্বমুখী অবস্থায় ছিল। খাদ্যদ্রব্য ছাড়া বাদবাকি সব পণ্যের মূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে। লকডাউনের কারণে কিছু কিছু খাদ্যদ্রব্যের মূল্যও আগের চেয়ে বৃদ্ধি পেয়েছে।

সাধারণ মুদ্রাস্ফীতি ২ ব্যাসিস পয়েন্টস বৃদ্ধি পেয়ে ৫.৪৮% এ অবস্থান করছে, যার পূর্বে অবস্থান ছিল ৫.৪৬%।

খাদ্যদ্রব্যে মুদ্রাস্ফীতি ১০ ব্যাসিস পয়েন্টস কমেছে, অবস্থান নিয়েছে ৪.৮৭% এ। খাদ্যদ্রব্যের বাইরে মুদ্রাস্ফীতি বেড়েছে ২২ ব্যাসিস পয়েন্টস, অবস্থান নিয়েছে ৬.৪৫% এ।

গ্রামাঞ্চলে মুদ্রাস্ফীতি বেড়েছে ৩ ব্যাসিস পয়েন্টস, অবস্থান নিয়েছে ৫.৪৭% এ। খাদ্যদ্রব্যে মুদ্রাস্ফীতি ৩ ব্যাসিস পয়েন্টস কমেছে, অবস্থান নিয়েছে ৫.০৬% এ। খাদ্যদ্রব্যের বাইরে মুদ্রাস্ফীতি বেড়েছে ১৫ ব্যাসিস পয়েন্টস, অবস্থান নিয়েছে ৬.২৭% এ।

Forexmart

শহরাঞ্চলে খাদ্যদ্রব্যে মুদ্রাস্ফীতি ৪.৭% থেকে ৪.৪৪% এ নেমে এসেছে। খাদ্যদ্রব্যের বাইরে মুদ্রাস্ফীতি ৬.৩৬% থেকে বেড়ে ৬.৬৯% এ অবস্থান করছে।

বাংলাদেশে খাদ্যদ্রব্যে মুদ্রাস্ফীতি গত মাসের চেয়ে কমে এসেছে, কিন্তু ক্রেতাদের মধ্যে আতঙ্কের ফলে অনেক কিছু ক্রয়ের পরিমাণ বেড়ে গেছে, ফলে সৃষ্টি হয়েছে সাময়িক সংকট, বেড়ে গেছে মূল্য।

বেড়েছে চাল, আলু, মসুর ডাল, লবণ, রসুন এবং আদার মূল্য।

পিয়াজের মূল্য অনেকাংশে কমেছে, ১২০ টাকা থেকে কমে ৮২ টাকায় নেমে এসেছে।

আটা, মাছ, বেগুন, ডিম এবং কাঁচা পেপের মূল্য অপরিবর্তিত অবস্থায় আছে।

leave a reply