বৈরুত বিস্ফোরণে নিহতের সংখ্যা ৭৮; আহত অগণিত মানুষ

বৈরুত বিস্ফোরণে নিহতের সংখ্যা ৭৮; আহত অগণিত মানুষ

MarketDeal24.Com – লেবাননের উদ্ধারকর্মীরা ধ্বংসস্তূপের মধ্যে দিয়ে জীবিতদের খোঁজার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। মূলত এক শক্তিশালী গুদাম বিস্ফোরণের পর সমগ্র বৈরুত কেঁপে উঠেছে। মারা গেছে ৭৮ জন মানুষ। আহত হয়েছে চার হাজার মানুষেরও বেশি। যদিও এই সংখ্যা আরো বাড়বে বলে আশংকা করা হচ্ছে।

বৈরুতের বন্দর সংলগ্ন একটি গুদামে উচ্চ মাত্রার বিস্ফোরক পদার্থ রাখা ছিল। সেখান থেকেই এই বিস্ফোরণের সূচনা ঘটে।

জানা যায় সে গুদামে ২৭৫০ টনের মত অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট রাখা ছিল, যা ব্যবহৃত হত সার এবং বোমা তৈরিতে। ছয় বছর ধরে তা বন্দরে পড়ে ছিল কোনো নিরাপত্তা বেষ্টনী ছাড়াই।

তবে ঠিক কী কারণে বিস্ফোরণ ঘটেছে এ ব্যাপারে অফিশিয়াল সূত্র কিছু জানায়নি। এক সিকিউরিটির সূত্রে এবং স্থানীয় মিডিয়ার বরাত অনুযায়ী জানা যায় ওয়েল্ডিং ওয়ার্ক থেকে এ বিস্ফোরণের সূচনা ঘটেছে।

Forexmart

বিস্ফোরণের পরপরই সমগ্র এলাকায় আগুন ছড়িয়ে পড়ে যা এখনো জ্বলছে। সন্ধ্যার পর সেখানকার আকাশে কমলা আভা দৃশ্যমান হয়।

লেবাননের প্রধানমন্ত্রী হাসান দিয়াব অঙ্গীকার করে বলেছেন যারা এই বিস্ফোরণের জন্য তাদের কঠোর শাস্তি দেয়া হবে।

ইসরায়েলের সূত্র জানাচ্ছে এই বিস্ফোরণের ওদের কোনো হাত নেই। ইসরায়েল এর আগে লেবাননের সাথে বেশ কিছু যুদ্ধে জড়িয়ে পড়ে। যদিও এবার ইসরায়েল বলছে এই ঘটনায় ওরা মানবিক এবং চিকিৎসা সাহায্য দিতে প্রস্তুত। হিযবুল্লাহ এর তরফ থেকেও যাবতীয় সাহায্য করার ব্যাপারে ঘোষণা এসেছে।

সাইপ্রাস জানিয়েছে তারা লেবাননের জন্য চিকিৎসা সাহায্য দিতে প্রস্তুত। লেবাননের এই বিস্ফোরণের শব্দ সাইপ্রাস থেকেও শোনা যায়, যার সাথে লেবাননের দূরত্ব ১০০ মাইল।

হোয়াইট হাউজ ব্রিফিংয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এই বিস্ফোরণকে সম্ভাব্য আক্রমণ হিসেবে আখ্যা দেন। যদিও দুইজন মার্কিন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা একে আক্রমণ হিসেবে উল্লেখ করছে না।

দিনের শুরুতে বাংলাদেশ শেয়ার বাজারে DSEX অতিক্রম করেছে ৪,৩০০ মার্ক