শুক্রবারের বাজারে লক্ষ্য রাখার মতো ৫টি বিষয় | ২৭শে নভেম্বর, ২০২০

শুক্রবারের বাজারে লক্ষ্য রাখার মতো ৫টি বিষয় | ২৭শে নভেম্বর, ২০২০ শুক্রবারের বাজারে লক্ষ্য রাখার মতো ৫টি বিষয় | ২৭শে নভেম্বর, ২০২০

MarketDeal24.Com – শুক্রবার, ২৭শে নভেম্বর অর্থনৈতিক বাজারে বিনিয়োগকারীদের যে ৫টি বিষয়ের উপর লক্ষ্য রাখতে হবে:

১. ভিন্ন রকম ব্ল্যাক ফ্রাইডে

আজকে ব্ল্যাক ফ্রাইডে, সাধারনত আমেরিকার সবচেয়ে ব্যাস্ততম দিন, কিন্তু ২০২০ সালে এসে একটু ভিন্নরকম ভাবেই পালিত হচ্ছে দিনটি।

প্রতি বছর এই দিনে খবরের চ্যানেল গুলোতে দেখা যেত ক্রেতারা দোকানের মধ্যে ভিড় করে দামাদামি করছে, কিন্তু করোনা ভাইরাসের নিষেধাজ্ঞার কারণে বেশিরভাগ দোকান এইবার অনলাইনে পণ্য বিক্রি করছে।

বিভিন্ন বড় বড় খুচরা বিক্রেতারা যারা মহামারী এর কারণে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে, তারা সাধারন সময়ের আগেই অফার ঘোষণা করেছে ব্ল্যাক ফ্রাইডে উপলক্ষে।

Forexmart

যদিও এখনো বেশিরভাগ খুচরা বিক্রিতারা বলছে বিক্রি বৃদ্ধি পাচ্ছে। জাতীয় খুচরা পণ্য ফেডারেশন জানিয়েছে তাদের পূর্বাভাস অনুযায়ী যুক্তরাষ্ট্রের ছুটির দিনের খুচরা বিক্রি ৩.৬% থেকে ৫.২% বৃদ্ধি পাবে ২০১৯ থেকে, যার বাজার মূল্য হবে $৭৫৫.৩ বিলিয়ন থেকে $৭৬৬.৭ বিলিয়ন।

২. BBVA (MC:BBVA) এবং Sabadell (MC:SABE) এর মধ্যে আলোচনা সমাপ্ত

Banco Sabadell এর শেয়ার ১২% পতনের সম্মুখিন হয়েছে তাদের প্রতিপক্ষ কোম্পানী BBVA এর সাথে মিলিত হওয়ার আলোচনা ভেস্তে যাওয়ার পরে। দুই পক্ষের দামের অমিলের কারণে এই চুক্তি হচ্ছে না বলে জানা গিয়েছে। তবে দুইটি কোম্পানী একত্রিত হলে তাদের বাজার মূল্য প্রায় ২৭.৫ বিলিয়ন ইউরো হতো।

স্পেনের দ্বিতীয় বৃহত্তম ব্যাংক BBVA বলেছে যে তাদের কোনো তাড়াহুড়া নেই আপাতত যেহেতু স্পেনের মার্কেটের ১৫% শেয়ার এখনো তাদের দখলে রয়েছে, যেখানে Sabadell জানিয়েছে তারা নতুন কৌশল অবলম্বন করবে যেখানে লোকাল বিজনেস এর প্রতি গুরুত্ব বাড়াবে তারা।

৩. মার্কিন শেয়ার বাজার ঊর্ধ্বমুখী

শুক্রবারে মার্কিন শেয়ার বাজার ঊর্ধ্বমুখী অবস্থায় দিন শুরু করতে যাচ্ছে, যদিও থ্যাংকসগিভিং এর ছুটির কারণে আজকে মার্কেট আগে আগে ক্লোজ হয়ে যাবে।

পূর্বাঞ্চলীয় সময় ৬টা ৩০ মিনিটে Dow Futures ৬২ পয়েন্টস বা ০.২% বৃদ্ধি পেয়েছে, যেখানে S&P 500 Futures ৭ পয়েন্টস বা ০.২% এবং Nasdaq 100 Futures ৪৬ পয়েন্টস বা ০.৪% বৃদ্ধি পেয়েছে।

মার্কিন শেয়ার বাজারের এই ঊর্ধ্বমুখী অবস্থার পিছনে রয়েছে করোনা ভ্যাকসিনের ইতিবাচক সংবাদ ও মার্কিন রাজনীতির স্থিতিশীল অবস্থা।

৪. পাউন্ডের শক্তিশালী অবস্থান

মার্কিন ডলারের বিপরীতে তিন মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ পর্যায়ের কাছাকাছি অবস্থান করছে ব্রিটিশ পাউন্ড, যদিও ব্রিটেনের অর্থমন্ত্রী রিসি সুনাক কয়েক দিনে আগে তাদের ব্যয় সম্পর্কে খুবই উদ্বেগজনক তথ্য প্রকাশ করেছেন।

সুনাক জানায় ব্রিটেনের অর্থনীতিকে সাহায্য করতে প্রায় ৪০০ বিলিয়ন পাউন্ড ঋণ নিতে হবে, যা কিনা তাদের জিডিপি এর ১৯ শতাংশ। তিনি আরো বলেন ২০২০ সালে ব্রিটিশ অর্থনীতি ১১% পতনের সম্মুখীন হতে যাচ্ছে।

এর পরেও পাউন্ড শক্তিশালী অবস্থা বজায় রেখেছে যেহেতু ট্রেডাররা আশা করছে যে ইউকে এবং ইইউ এর মধ্যে ব্রেক্সিট চুক্তি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

৫. তেলের মূল্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া

শুক্রবারে ক্রূড অয়েলের মূল্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা গিয়েছে, তবে এখনো তাদের মহামারী পূর্ববর্তী মূল্যের কাছাকাছি অবস্থান করছে যেহেতু পরবর্তী সপ্তাহে ওপেক প্লাসের মিটিং এর দিকে তাকিয়ে রয়েছে সবাই।

পূর্বাঞ্চলীয় সময় ৬টা ৩০ মিনিটে U.S. crude ০.৮% হ্রাস পেয়ে $৪৫.৩৪ করে লেনদেন করেছে, যেখানে Brent crude ০.৮% বৃদ্ধি পেয়ে $৪৮.১৬ করে লেনদেন হয়েছে।

রয়টার্স এর খবর অনুযায়ী রবিবারে ওপেক প্লাস এর সদস্যরা আলোচনায় বসবে তেলের উৎপাদন নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য।

leave a reply