সাপ্তাহিক রিভিউ: সূচকের পতনের সাথে সাথে টার্নওভার কমেছে ১৪.২১ শতাংশ

সাপ্তাহিক রিভিউ: কেমন ছিল এই সপ্তাহের পুঁজিবাজার! সাপ্তাহিক রিভিউ: কেমন ছিল এই সপ্তাহের পুঁজিবাজার!

MarketDeal24.Com – সদ্য বিদায়ী সপ্তাহে পুঁজিবাজারের বেশিরভাগ সময় কেটেছে সূচকের পতনের মধ্য দিয়ে, সেই সাথে কমেছে টার্নওভার। এই সপ্তাহে দৈনিক গড় টার্নওভার হ্রাস পেয়েছে ১৪.২১ শতাংশ। এবং বাজার মূলধন কমেছে ১.৩০ শতাংশ।

সাপ্তাহিক ভিত্তিতে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের মুখ্য সূচক DSEX ২৫.০৭ পয়েন্টস বা ০.৫১% হ্রাস পেয়ে ৪,৮৭৯ পয়েন্টসে অবস্থান করছে।

ব্লু চিপস হিসেবে পরিচিত DS30 সূচক ১০.২৬ পয়েন্টস বা ০.৬০% হ্রাস পেয়ে ১,৭০১ পয়েন্টসে সপ্তাহ শেষ করেছে। তবে ডিএসই শরিয়াহ সূচক DSES ১১.৪৪ পয়েন্টস বা ১.০২% বৃদ্ধি পেয়ে অবস্থান করছে ১,১২৮ পয়েন্টসে।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে সপ্তাহের সর্বমোট টার্নওভার ছিল ৩৯.০৯ বিলিয়ন টাকা যা এর আগের সপ্তাহে ছিল ৪৫.৫৬ বিলিয়ন টাকা।

Forexmart

বিদায়ী সপ্তাহে ৬৩টি শেয়ারের মূল্য ছিল অপরিবর্তিত, ৯৯টি ঊর্ধ্বমুখী এবং ১৯৯টি ছিল নিম্নমুখী আর লেনদেন হয়নি ৩টি কোম্পানির শেয়ার।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে বৃহস্পতিবার বাজার মূলধন ছিল ৩,৯৩২.৯৯ বিলিয়ন টাকা যা এর আগের সপ্তাহে ছিল ৩,৯৮৪.৭৫ বিলিয়ন টাকা। অর্থাৎ এই সপ্তাহে বাজার মূলধন হ্রাস পেয়েছে ১.৩০ শতাংশ।

বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড ছিল সপ্তাহে টার্নওভার তালিকার শীর্ষে। যার আর্থিক হাত বদলের পরিমাণ ছিল ২.৯৪ মিলিয়ন টাকা। তারপরই ছিল স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড, বাংলাদেশ এক্সপোর্ট ইমপোর্ট কোম্পানি লিমিটেড, গ্রামীণ ওয়ান:স্কিম টু এবং ব্র্যাক ব্যাংক লিমিটেড।

এই সপ্তাহের সেরা পারফর্মার ছিল বাংলাদেশ ল্যাম্পস লিমিটেড যার সর্বোচ বৃদ্ধির পরিমান ছিল ৩৮.৫৫ শতাংশ এবং সবথেকে খারাপ অবস্থানে থেকে সপ্তাহ শেষ করেছে সিএপিম বিডিবিল মিউচুয়াল ফান্ড ০১, কোম্পানিটির শেয়ার মূল্য কমেছে ২২.৬৬ শতাংশ।

সাপ্তাহিক ভিত্তিতে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের CASPI ০.৭০% হ্রাস পেয়ে ১৩,৯৬৮ পয়েন্টসে অবস্থান করছে। অপরদিকে CSCX ০.৭০% হ্রাস পেয়ে ৮,৪১০ পয়েন্টসে অবস্থান করছে।

চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (CSE) সর্বমোট টার্নওভার ছিল ১.১২ বিলিয়ন টাকা। গেল সপ্তাহে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে ৬৫টি শেয়ারের মূল্য ছিল অপরিবর্তিত, ৭২টি ঊর্ধ্বমুখী এবং ১৭৬টি নিম্নমুখী।

leave a reply