সুদের হারের মধ্যে কমতি অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিকে সমর্থন করার উদ্দেশ্যে কাজ করে যাচ্ছে: রিসার্ভ ব্যাঙ্ক অব অস্ট্রেলিয়া

1
175 views
সুদের হারের মধ্যে কমতি অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিকে সমর্থন করার উদ্দেশ্যে কাজ করে যাচ্ছে: রিসার্ভ ব্যাঙ্ক অব অস্ট্রেলিয়া
সুদের হারের মধ্যে কমতি অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিকে সমর্থন করার উদ্দেশ্যে কাজ করে যাচ্ছে: রিসার্ভ ব্যাঙ্ক অব অস্ট্রেলিয়া

MarketDeal24.Com – আজ মঙ্গলবার, সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবসে অস্ট্রেলিয়ার কেন্দ্রীয়ব্যাঙ্ক রিসার্ভ ব্যাঙ্ক অব অস্ট্রেলিয়ার একজন কর্মকর্তার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে, দেশটির অর্থনীতিকে চাঙ্গা করার জন্যে চিরাচরিত প্রথার বাহিরে গিয়েও ব্যাংকটি নানা ধরণের সম্প্রসারণমূলক মুদ্রানীতি গ্রহণ করতে পারে। তবে, তিনি আরও বলেন, যে তা হয়তো হবার সম্ভব খুব কম, কারণ সাম্প্রতিক সময়ে ব্যাংকটির দ্বারা সুদের হারের মধ্যে আনীত হ্রাস দেশটির অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিকে সমর্থন যোগানোর উদ্দেশ্যে কাজ করে যাচ্ছে।

গত জুন এবং জুলাই মাসে রিসার্ভ ব্যাঙ্ক অব অস্ট্রেলিয়া দেশটির অর্থনীতিতে বিদ্যমান সুদের হারের মধ্যে কমতি এনে তাকে করেছে 1%। শুধু তাই নয়, সুদের হারের মধ্যে কমতি আনার সিদ্ধান্ত গ্রহণের পরে ব্যাংকটির পক্ষ থেকে দীর্ঘদিন পর্যন্ত সুদের হারকে কম রাখার বিষয়ে প্রতিশ্রুতিও প্রদান করা হয়।

অস্ট্রেলিয়ার প্রতিবেশী রাষ্ট্র নিউজিল্যান্ডের অবস্থা আরও শোচনীয়। দেশটির কেন্দ্রীয়ব্যাঙ্ক রিসার্ভ ব্যাঙ্ক অব নিউজিল্যান্ড সাম্প্রতিক সময়ে দেশটির অর্থনীতিতে বিদ্যমান সুদের হারের মধ্যে কমতি এনেছে 50 বেসিস পয়েন্টস হারে।

এই সম্পর্কে অস্ট্রেলিয়ার কেন্দ্রীয়ব্যাঙ্কের সহযোগী গভর্নর ক্রিস্টোফার কেন্ট বলেন, “নিউজিল্যান্ডের আদলে মুদ্রানীতি গ্রহণ করার প্রয়োজন অস্ট্রেলিয়ায় নেই তবে, তা আগামী দিনে নিতে হবে না, তা বলা যায় না।”

অস্ট্রেলিয়ার সুদের হার সম্পর্কে বিশ্ববাজারে বিনিয়োগকারীদের প্রত্যাশা হলো যে, চলমান বছরে আরও দুইবার সুদের হারের মধ্যে কমতি আসতে পারে।

অবস্থা সম্পর্কে ক্রিস্টোফার কেন্ট আরও বলেন, “আমরা যা করছি তা হচ্ছে যে, আমরা বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন দেশগুলোর অর্থনৈতিক অবস্থা এবং তার প্রতি সেই সকল দেশগুলোর কেন্দ্রীয়ব্যাংকগুলোর প্রতিক্রিয়া পর্যালোচনা করছি।”

উল্লেখ্য, বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন দেশগুলোর মুদ্রানীতি নির্ধারকরা এখন চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন। একদিকে প্রয়োজনের চেয়ে স্তিমিত মুদ্রাস্ফীতির হার, অন্যদিকে, প্রত্যাশার চেয়ে কম হারে মজুরির বৃদ্ধি সৃষ্টি করেছে এক অদ্ভুত ধরণের পরিস্থিতির। যদিও, উন্নত অর্থনীতিগুলোতে বেকারত্বের হার এখন ঐতিহাসিকভাবে সর্বনিম্নে, কিন্তু মার্কিন-চীন চলমান বাণিজ্য যুদ্ধ, পরিস্থিতিকে করেছে আরও ঘোলাটে, যা অন্যদিকে, জন্ম দিয়েছে একটি অর্থনৈতিক মন্দার আসন্ন হওয়ার আশংকাকে।

IC MARKETS ব্রোকার এ একাউন্ট খুলুন – http://bit.ly/2Jd7FsO

Facebook Comments

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.