ADVERTISING

Gold এর পতন অব্যাহত; শক্তিশালী অবস্থানে মার্কিন ডলার

Gold এর পতন অব্যাহত; শক্তিশালী অবস্থানে মার্কিন ডলার Gold এর পতন অব্যাহত; শক্তিশালী অবস্থানে মার্কিন ডলার

MarketDeal24.Com – মার্কিন বন্ড ইয়েল্ড ঊর্ধ্বমুখী অবস্থায় আছে যার ফলে নিম্নমুখী অবস্থা থেকে উত্তরণ ঘটছে ডলারের। গোল্ড ক্রয়ের চেয়ে বিক্রয়ের পরিমাণ বেড়ে গেছে অনেক বেশি। আর্থিক প্রণোদনা পদক্ষেপ নিয়ে হোয়াইট হাউজে এখনো অনেক আলোচনা বাকি। এছাড়াও আমেরিকায় করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যাও অনেকাংশে বেড়ে গেছে যা নেতিবাচক প্রভাব ফেলেছে সার্বিকভাবে। এছাড়া বিনিয়োগকারীদের নজর রয়েছে US CPI এর দিকে।

Gold এর পতন অব্যাহত রয়েছে। পতন ঘটেছে বিগত যে কোনো সময়ের সর্বোচ্চ অবস্থান $2,075 থেকে। পতনের আর্থিক মূল্যমান $200 এর সমমূল্য। সিলভারের মূল্য কিছুদিন আগে $30 এ পৌঁছায় যা বর্তমানে $25 এর নিচে অবস্থান করছে।

ইয়েল্ডসের সাথে সাথে বৃদ্ধি পাচ্ছে মার্কিন ডলার। হোয়াইট হাউজ additional unemployment benefits এ রাষ্ট্রের অংশগ্রহণ সংক্রান্ত দাবী তুলে নিয়েছে।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের নির্বাহী আদেশ আইনি প্রতিবন্ধকতার সম্মুখীন হলেও দেশটির অর্থনীতিতে সরকারী পৃষ্ঠপোষকতার এখনো অনেক সুযোগ রয়েছে।

Forexmart

আমেরিকায় দৈনিক করোনা ভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৫০ হাজারের নিচে নেমে এসেছে। তবে মঙ্গলবার আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ায় ১৪০০ জন, যা জুনের পর সর্বোচ্চ। যদিও মৃতের সংখ্যা কমে এসেছে কিন্তু আক্রান্তের সংখ্যার বৃদ্ধি দুশ্চিন্তার সৃষ্টি করেছে সর্বত্র।

ট্রাম্প ঘোষণা দিয়েছে ১০০ মিলিয়ন করোনা ভ্যাকসিন ক্যান্ডিডেট ডোজ কিনবে Moderna এর কাছ থেকে। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন এরই মধ্যে বিশ্বের প্রথম করোনা ভ্যাকসিন আন্তর্জাতিকভাবে বাজারে ছাড়ার কথা ভাবছেন।

তবে ইয়েল্ডসে ঊর্ধ্বমুখী অবস্থা কতটুকু বজায় থাকে তা বোঝা যাবে জুলাই মাসের Consumer Price Index figures প্রকাশিত হওয়ার পর। মুদ্রাস্ফীতির বৃদ্ধি এক্ষেত্রে অনেক বড় প্রভাবক হিসেবে কাজ করবে।

NZD/USD পেয়ারে ব্যাপক পতন লক্ষ্য করা যাচ্ছে যা শুরু হয়েছে রিজার্ভ ব্যাংক অভ নিউজিল্যান্ডের বন্ড ক্রয় স্কিম বৃদ্ধির পর।

GBP/USD

GBP/USD পেয়ারটি 1.30 এর উপরে অবস্থান করছে যেখানে যুক্তরাজ্যের দ্বিতীয় প্রান্তিকের জিডিপিতে 20.4% পতন ঘটেছে।

EUR/USD লেনদেন হচ্ছে 1.17 এর কাছাকাছি। জার্মানির স্বাস্থ্যমন্ত্রী সেখানকার জনগণকে সাবধান থাকতে বলেছে করোনা সংক্রান্ত বিষয়ে।

Cryptocurrencies এ নজর দিলে দেখা যাবে তা ঊর্ধ্বমুখী অবস্থা থেকে পতিত হয়েছে, Bitcoin লেনদেন হচ্ছে $11,200 এর কাছাকাছি এবং Ethereum $400 থেকে ধীরে পিছিয়ে যাচ্ছে এবং XRP $0.30 থেকে হ্রাস পাচ্ছে।

যুক্তরাজ্যের শিল্প উৎপাদন প্রত্যাশার চেয়ে বেশি বৃদ্ধি পেয়েছে

leave a reply