NFP বিশ্লেষণ: মার্কিন কর্মসংস্থানের হারে ব্যাপক উন্নতি; বেকারত্বের হার কমে এখন 3.6%

1
190 views
NFP বিশ্লেষণ: মার্কিন কর্মসংস্থানের হারে ব্যাপক উন্নতি; বেকারত্বের হার কমে এখন 3.6%
NFP বিশ্লেষণ: মার্কিন কর্মসংস্থানের হারে ব্যাপক উন্নতি; বেকারত্বের হার কমে এখন 3.6%

ওয়াশিংটন (রয়টার্স) – বিশ্বের সর্ববৃহৎ অর্থনীতি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে গত এপ্রিল মাসে কর্মসংস্থানের নতুন সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে ব্যাপক হরে, অন্যদিকে, দেশটির অর্থনীতিতে বিদ্যমান বেকারত্বের হার এখন গত ৪৯-বছরের মধ্যে সর্বনিম্নে। গত বছরের দেশটির রিপাবলিকান আইনপ্রণেতাদের দ্বারা অর্থনৈতিক প্রণোদনা হিসেবে প্রদত্ত প্রাতিষ্ঠানিক কর হরে হ্রাস এবং সরকারি ব্যয় বৃদ্ধির অর্থনৈতিক প্রভাবজনিত অবস্থার শেষের দ্বারপ্রান্তে এসে মার্কিন অর্থনীতি সম্পর্কে এইরকম একটি ইতিবাচক খবর দেশটির অর্থনীতির একটি টেকসই প্রবৃদ্ধির দিকে থাকাকে ইঙ্গিত করে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের শ্রম মন্ত্রণালয় দ্বারা প্রতি মাসের প্রথম শুক্রবারে প্রকাশিত কর্মসংস্থানের নতুন সুযোগ সৃষ্টি সম্পর্কিত এই প্রতিবেদনটি যা Non – Farm Payroll বা NFP নামেও পরিচিত, তা আজ শুক্রবারে দেখিছে যে গত এপ্রিল মাসে দেশটির অর্থনীতিতে কর্মসংস্থানের নতুন করে ২৬৩,০০০টি সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। কর্মসংস্থানের ঐ সকল সুযোগগুলো অবশ্য সৃষ্টি হয়েছে অর্থনীতির প্রায় প্রতিটি ক্ষেত্রেই এবং বিদ্যমান বেকারত্বের হার এখন মাত্র 3.6%, যা ১৯৬৯ সালের ডিসেম্বর মাসের পর এই প্রথম।

তবে এতো বড় সু-সংবাদের পরেও দেশের অর্থনীতিতে বিদ্যমান ঘন্টা ভিত্তিক মজুরির হার প্রত্যাশা মাফিক বৃদ্ধি পায়নি। ঘন্টা ভিত্তিক মজুরি বৃদ্ধির যেই হার এসেছে তা অর্থনীতিতে একটি স্তিমিত মুদ্রাস্ফীতির কথা বলে। তবে, বেকারত্বের হারের মধ্যে এই পরিমানে কমতি আনার পেছনে কারণ হলো বেশিরভাগ লোক আগামী এক বা দুই বছরে শ্রমবাজার থেকে সরে পড়বে। ঐ প্রতিবেদনটি দেশটির কেন্দ্রীয়ব্যাংক, ফেডারেল রিজার্ভ এর সুদের হারের বিষয়ে সিদ্ধান্তকে সমর্থন করে। ইতিমধ্যেই, ফেডারেল রিসার্ভ কর্তৃক সুদের হারকে অপরিবর্তিত রাখা এবং মুদ্রানীতিতে আপাতত কোনো ধরণের পরিবর্তন না আনার ইঙ্গিত দেয়া হয়েছে। শুক্রবারের NFP প্রতিবেদনকে ফেড এর চেয়ারম্যান জেরোমি পাওয়েল, “প্রত্যাশার চেয়েও শক্তিশালী” এবং মুদ্রাস্ফীতি সম্পর্কে “কিছুটা স্তিমিত” বলে মন্তব্য করেন।

এই সম্পর্কে নিউইয়র্ক ভিত্তিক UniCredit Research এর প্রধান অর্থনীতিবিদ Harm Bandholz বলেন, “অর্থনীতির স্বাস্থ্যের ব্যপারে যে কোনো ধরণের আশংকাকে উড়িয়ে দেয়ার মতো শক্তিশালী অবস্থা হয়েছে কর্মসংস্থানের নতুন সুযোগ সৃষ্টির। অন্যদিকে, ঘন্টাভিত্তিক মজুরির পরিমানে বৃদ্ধি এতো স্তিমিত ছিলো যা এই মুহূর্তে ফেড কর্তৃক মুদ্রানীতিতে কোনো ধরণের পরিবর্তন আশা করেনা।”

গত এপ্রিল মাসের NFP প্রতিবেদন ছাড়াও গত মার্চ এবং ফেব্রুয়ারী মাসের প্রতিবেদনগুলোতে পরিবর্তন আনা হয়েছে। ফেব্রুয়ারিতে এবং মার্চে কর্মসংস্থানের নতুন সযোগ সৃষ্টির সংখ্যা ১৬,০০০ বৃদ্ধি পাবে। সংবাদ সংস্থা রয়টার্স দ্বারা অর্থনীতিবিদদের উপরে চালানো সমীক্ষা দ্বারা দেশের অর্থনীতিতে গত মাসে কর্মসংস্থানের নতুন সুযোগ সৃষ্টির ব্যপারে ১৮৫,০০০ এর সংখ্যাটি প্রত্যাশিত হিসেবে উঠে আসে।

একটি শক্তিশালী অর্থনীতি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আগামী ২০২০ সালে পুন:নির্বাচিত হওয়ার সম্ভাবনাকে বৃদ্ধি করবে। ট্রাম্প, যিনি অর্থনৈতিক এই ঘুরে দাঁড়ানোকে তার ক্ষমতার প্রথম কার্যকালের সবচেয়ে বড় অর্জন বলে চালাচ্ছেন, তিনি সদ্য প্রকাশিত হওয়া এই NFP প্রতিবেদনের বিষয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে এই বার্তাটি দেন, “চাকরি, চাকরি, এবং চাকরি।”

Facebook Comments

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.