Profitable Trading Strategy | লাভজনক ট্রেডিং কৌশলের ৫ টি মৌলিক উপাদান

Profitable Trading Strategy | লাভজনক ট্রেডিং কৌশলের ৫ টি মৌলিক উপাদান Profitable Trading Strategy | লাভজনক ট্রেডিং কৌশলের ৫ টি মৌলিক উপাদান

MarketDeal24.Com – Profitable Trading Strategy | একটি ট্রেডিং কৌশল অবলম্বন করা এবং নিজ পরিকল্পনায় স্থির থাকার ব্যাপারে এর আগে বলা হয়েছে। কিন্তু লাভজনক পরিকল্পনা বা কৌশল কেন প্রয়োজন?

প্রথমেই বলে রাখা ভালো একটি পরিপূর্ণ ট্রেডিং জার্নাল রাখা যে কোনো ট্রেডারের জন্য অবশ্য পালনীয় কর্তব্য। একটি পরিপূর্ণ ট্রেডিং জার্নাল আপনাকে বিভিন্ন সূচক, প্রভাবক এবং আপনার জন্য সার্বিকভাবে মঙ্গলজনক হয় এমন সেটআপের ব্যাপারে স্পষ্ট ধারণা দেবে।

এই সকল উপাদান এবং ধারণা আপনার ট্রেডিং কৌশলকে শুধু লাভজনকই করবে না, এতে করে শৃঙ্খলা বজায় রাখা থেকে শুরু করে পরিকল্পনা অনুসরণের সঠিক পথও বলে দেবে এবং আপনার বিপথে পরিচালিত হওয়ার সম্ভাবনা হ্রাস পাবে।

১. মার্কেট এনভায়রনমেন্ট

যে কোনো ট্রেড নেয়ার সময় মার্কেট এনভায়রনমেন্ট বোঝাটা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এবং অপরিহার্য়। তাই এটি লাভজনক ট্রেডিং কৌশলের একটি অন্যতম স্তম্ভ।

Forexmart

সহজ কথায়, ব্যাপারটা মূলত হিসাবনিকাশ করা যার মাধ্যমে আপনি বুঝতে পারবেন অ্যাসেট প্রাইস ট্রেন্ডিং এর দিকে নাকি রেঞ্জ অভিমুখী। সঠিক নির্দেশনা ব্যবহার করা জানতে হবে এবং মার্কেটের বর্তমান পরিবেশ বুঝে প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম যোগাড় করতে হবে।

ট্রেন্ডিং মার্কেটে, অ্যাসেট প্রাইস একটি নির্দিষ্ট দিকে দীর্ঘ সময়ের জন্য ধাবিত হয়। সেই অবস্থায় মুভিং এভারেজ, ফিবোনাচ্চি এবং ট্রেন্ড লাইন আপনার কৌশলে অন্তর্ভুক্ত করাটাই স্বাভাবিক।

রেঞ্জ বাউন্ড বা রেঞ্জ অভিমুখী মার্কেটে অ্যাসেট প্রাইস সাধারণত সাপোর্ট আর রেসিসটেন্স লেভেলে অনেক বেশি ছুটোছুটি করে। সেক্ষেত্রে পিভোট পয়েন্টস, বুলিঙ্গার ব্যান্ডস অথবা অসিলেটর বেশ ভালো কৌশল হিসেবে কাজে দেয়।

মনে রাখা উচিত আপনার প্রয়োগ করার উপর নির্ভর করবে টেকনিক্যাল ইন্ডিকেটরগুলোর ট্রেন্ডিং বা রেঞ্জিং মার্কেটের ফলাফল। তাই মার্কেট এনভায়রনমেন্টের ব্যাপারে অবগত হওয়ার কোনো বিকল্প নেই।

২. মোমেন্টাম

মোমেন্টাম বা ভরবেগ সাধারণত ফিজিক্সের মূলনীতির সাথে যুক্ত। কিন্তু ট্রেডিং এর জগতে, মোমেন্টাম বলতে বোঝায় একটি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে কত দ্রুত অ্যাসেট প্রাইস বদলায়।

টেকনিক্যাল ইন্ডিকেটরগুলোকে অংকের জটিল সূত্রের মতো করে ব্যবহার করে এই মোমেন্টাম নিয়ে ধারণা নিতে পারেন অথবা শুধু প্রাইস অ্যাকশনে চোখ বুলিয়েই এমনটা করতে পারেন।

যেমন, একটি খাড়া এবং বড় আকারের র‍্যালি গত চার ঘণ্টায় কী অবস্থায় ছিল আগের তুলনায় তা বিচার করে বলা যায় এতে শক্তিশালী বুলিশ মোমেন্টাম রয়েছে।

প্রাইস অ্যাকশন কোনদিকে নির্দেশিত হবে তার একটা স্পষ্ট ধারণা পাওয়া যায় মোমেন্টামের দিকে নজর দিলে। এছাড়া ইনফ্লেকশনের রিভার্সাল, ব্রেকআউট এবং ট্রেন্ডে পোটেনশিয়াল কারেকশনের গতির ব্যাপারেও ধারণা পাওয়া যায়।

৩. ইনফ্লেকশন পয়েন্টস

ইনফ্লেকশন পয়েন্টস দ্বারা মূলত সাপোর্ট এবং রেসিসটেন্স লেভেলকে বোঝানো হয় যার দ্বারা আপনার ট্রেডিং কৌশলে এন্ট্রি এবং এক্সিট রুল নির্ধারণ করতে পারবেন।

ইনফ্লেকশন পয়েন্টের অন্তর্ভুক্ত ফিবোনাচ্চি লেভেল, পিভোট পয়েন্ট, অতীতের বিভিন্ন প্রাইস অ্যাকশন এনালাইসিস এবং সাইকোলজিকাল নাম্বার, টেকনিক্যাল ইন্ডিকেটর সংক্রান্ত বিভিন্ন লেভেল কিংবা উল্লেখিত উপাদানের সমন্বয়ে সামগ্রিক একটি প্রক্রিয়া।

৪. ভলিউম

আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হচ্ছে ভলিউম। যা দ্বারা কোনো নির্দিষ্ট অ্যাসেটের মার্কেট ইন্টারেস্ট লেভেল খতিয়ে দেখা হয়। ভলিউমের পরিবর্তন ট্রেডে প্রবেশের এবং ট্রেড থেকে বের হওয়ার উপযুক্ত সময় কোনটি তা চিহ্নিত করতে সাহায্য করে।

মেইন প্রাইস চার্টের নিচে প্রায়শই লাইন কিংবা বার হিসেবে ভলিউম দৃশ্যমান হয়। একটি অ্যাসেট যত সক্রিয়তার সাথে ট্রেড করা হবে ততই তার ভলিউম বাড়বে।

কনসলিডেশন চলাকালীন সময়ে ভলিউম হ্রাস এবং স্বল্পদৈর্ঘ্যের বার দৃশ্যমান হয়। অপরদিকে ভলিউম বৃদ্ধি বা বৃহৎ আকৃতির বার দৃশ্যমান হয় ব্রেকআউটের সময়ে।

৫. টাইমিং

টাইমিং সিকিউরিটির উত্থান পতনের সময়কাল এবং তার সাথে পূর্ববর্তী কনসলিডেশনের যোগসূত্র নির্ধারিত করে। উদাহরণ হিসেবে বলা যায় ট্রেডিং সেশনের শেষে কিছু কারেন্সি পেয়ারে সামঞ্জস্য পরিলক্ষিত হয়।

তখন যদি আপনি কনসলিডেশনের সময়কাল সম্পর্কে আইডিয়া নিতে পারেন তাহলে ট্রেডে আপনার প্রবেশ লাভজনক হবে, সেল করার আগে উৎকৃষ্ট একটি মূল্য সনাক্ত করতে সক্ষম হবেন এবং সাময়িক দরপতনের উঠানামা আপনাকে বিভ্রান্ত করতে পারবে না।

অবশ্যই এ সকল উপাদান সম্পূর্ণ ধ্রুব এবং স্থির বা অপরিবর্তনীয় কিছু নয়। এক্ষেত্রে নতুন নতুন উপাদান যাচাই করে আপনি ট্রেডিং এর ফলাফলে কাঙ্ক্ষিত পরিবর্তন নিয়ে আসতে পারেন। Profitable Trading Strategy

Trading Bias Vs Prediction | বায়াস ট্রেডিং বনাম প্রেডিকশন ট্রেডিং

leave a reply